তাৎক্ষণিক চিকিৎসায় হয়তো বাঁচানো যেত আইনজীবী পলাশকে : হাইকোর্ট

  


পিএনএস ডেস্ক: পঞ্চগড় কারাগারের ভেতরে আইনজীবী পলাশ কুমার রায় অগ্নিদগ্ধ হওয়ার পর তার চিকিৎসায় গাফিলতি কারাগারে আগুন বা দিয়াশলাই কিভাবে অবাধে ঢুকছে এ বিষয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। এ সময় আদালত বলেন, আইনজীবী পলাশ রায়ের গায়ে আগুন ধরার পর যদি তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দেয়া যেতো হয়তো তাকে বাঁচানো সম্ভব ছিল।

আজ বুধবার শুনানির নির্ধারিত দিনে হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি মো.বদরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এমন মন্তব্য করেন। এরপর এ বিষয়ে আদেশ দেন আদালত।

আদেশে স্বরাষ্ট্র সচিব ও আইজি প্রিজন্সকে জেলখানার অব্যবস্থাপনা নিয়ে এই প্রতিবেদেনের জবাব লিখিতিভাবে দিতে বলা হয়েছে।

জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের প্রতিবেদনে প্রকাশ কারাগারে অগ্নিদগ্ধ হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পর চিকিৎসা দেয়া হয়েছে আইনজীবী পলাশকে। সে প্রতিবেদন আজ হাইকোর্টে উপস্থাপন করা হয়।

কারা হেফাজতে গত ৮ মে অগ্নিদগ্ধ হওয়ার পর হাসপাতালে আইনজীবী পলাশের মৃত্যুর ঘটনায় পঞ্চগড়ের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের তত্ত্বাবধানে বিচারিক তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। সঙ্গে সঙ্গে, এ তদন্তে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করতে পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক, জেলা কারাগারের প্রধান ও পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেয়া হয়।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech