বাথরুমের কমোডে অজগর! অতঃপর...

  

পিএনএস ডেস্ক : মাত্রই বাথরুমে ঢুকেছিলেন। ভেবেছিলেন, নিশ্চিন্তে শৌচকর্ম সেরে বেরিয়ে আসবেন। কিন্তু তা আর হল না। কমোডের ঢাকনা তুলেই আঁতকে উঠলেন এক ব্যক্তি। ছিটকে বাইরে বেরিয়ে এলেন তিনি। এসে যা শোনালেন, তাতে আঁতকে উঠলেন পরিবারের সবাই। উঁকি দিয়ে দেখলেন, সত্যিই বটে। কমোডের মধ্যে গুটিসুটি মেরে পড়ে রয়েছে আস্ত এক অজগর সাপ।

অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনের পশ্চিম উইনামের একটি বাড়িতে এই ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বিষয়টি সামনে এনেছে ব্রিসবেন বন দফতরের সরীসৃপ বিভাগ। নিজেদের ফেসবুক পেজে কমোডের মধ্যে থাকা অবস্থায় অজগর সাপটির ছবি পোস্ট করেছে তারা। মুহূর্তের মধ্যে যা ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। বহু মানুষ ওই ছবি শেয়ার করেছেন। আবার আতঙ্কও প্রকাশ করেছেন অনেকে। কেউ কেউ জানিয়েছেন, এ বার থেকে বাথরুমে যেতে সত্যি-ই ভয় করবে। কেউ কেউ আবার কমোডের ঢাকনা খোলা না রাখার পরামর্শ দিয়েছেন।

ব্রিসবেন সরীসৃপ বিভাগের প্রধান স্টুয়ার্ট লেলর সংবাদমাধ্যমকে জানান, সম্প্রতি ওই পরিবারের কাছ থেকে ফোন পান তাঁরা। গিয়ে দেখেন কমোডের মধ্যে ইংরেজির ‘এস’-এর আকারে পড়ে রয়েছে সাপটি। তাঁদের দেখে নিজে থেকেই মাথা তোলে। যার পর থলিতে ভরে তাকে কমোড থেকে বের করে নিয়ে চলে আসেন তাঁরা। স্টুয়ার্ট লেলরের দাবি, বাথরুমের পাইপ বেয়েই উঠে এসেছিল সাপটি। তবে ভয়ের কিছু নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। কারণ ‘কার্পেট’প্রজাতির ওই সাপটির বিষ নেই। তবে কাছে গেলে বিপদ হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন।

অজগর শিকার করা একেবারে নিষিদ্ধ অস্ট্রেলিয়ায়। বরং চোখে পড়লে সাপ ধরার লাইসেন্সপ্রাপ্ত লোকজনকে খবর দেওয়াই নিয়ম। তবে সেখানে এমন ঘটনা এই প্রথম নয়। গতবছর জুলাই মাসে টাউন্সভিলে নিজের বাড়ির বাথরুমে একই পরিস্থিতির মুখোমুখি হল এক ব্যক্তি। তার আগে মার্চ মাসে সানশাইন কোস্টে বাড়ির বাথরুমে গিয়েছিল এক কিশোর। সেখানে আচমকাই তার পা পেঁচিয়ে ধরে একটি অজগর।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech