যে ট্রেনের যাত্রী শুধুই নারী!

  


পিএনএস ডেস্ক: গণপরিবহনে নারীদের জন্য সংরক্ষিত আসনের কথা সবারই জানা। তেমনি আস্ত একটি বাহন নারীদের জন্য বরাদ্দের ঘটনা বাংলাদেশেও আছে। কিন্তু আস্ত একটি ট্রেন শুধুই নারীদের যাতায়াতের জন্য ব্যবহৃত হয়, তা হয়তো ব্যতিক্রমী। ভারতের মুম্বাইয়ে রয়েছে এমনই একটি রেলগাড়ি।

১৯৯২ সালে মুম্বাই শহরতলিতে নারীদের জন্য চলাচলকারী ট্রেনটি শুধু ভারতেই নয়, সারা বিশ্বেই প্রথম। প্রয়োজনীয়তার দিক থেকে এটি এখনো ধরে রেখেছে তার অবস্থান। প্রায় ২৭ বছর পরে ট্রেনটির প্রয়োজনীয়তা বরং আরও বেড়েছে। সে জন্যই ট্রেনে ওঠার সময় দেখা যায় নারীদের উপচে পড়া ভিড়। নিয়মিত যাতায়াতকারী যাত্রীমাত্রই জানেন, আগে থেকে অপেক্ষা না করলে মিলবে না ট্রেনের মহার্ঘ আসন। তবে এত ভিড়টিড় পাশ কাটিয়েও বন্ধুত্ব কিন্তু ঠিকই গড়ে ওঠে। দিনের পর দিন পাশাপাশি যাতায়াত করার জন্য অনেকেই বন্ধু খুঁজে নেন এই ট্রেনে। এমনকি কোনো আনন্দ উদ্‌যাপন কিংবা জন্মদিনের অনুষ্ঠানও হয়ে থাকে ট্রেনের কামরাতেই। নারী ট্রেনে হকাররা গৃহস্থালির জিনিসপত্র বিক্রি করে সময়ও বাঁচিয়ে দেন নারীদের।

প্রসঙ্গত, মুম্বাইয়ের ট্রেনগুলো বিশ্বের সবচেয়ে বেশি অতিরিক্ত যাত্রীবাহী ট্রেন। এসব ট্রেন প্রায় আড়াই গুণ বেশি যাত্রী নিয়ে চলাচল করে, যা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। ২০১৬ থেকে ২০১৭ এই এক বছরে মুম্বাইয়ে ট্রেনের কারণে মারা গেছে প্রায় সাড়ে তিন হাজার মানুষ। সে জন্যই নারীদের নিরাপত্তার জন্য নারী ট্রেনের গুরুত্ব যে কতখানি, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। বিবিসি ও ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস অবলম্বনে ফাইজুন নাহার

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech