১০৫ বছর বয়সে চতুর্থ শ্রেণি পাশ করলেন এই বৃদ্ধা!

  

পিএনএস ডেস্ক : গত নভেম্বরে ক্লাস ফোরের পরীক্ষায় বসেছিলেন তিনি। তখনই চমকে উঠেছিলেন সকলে। কারণ পরীক্ষার্থীর বয়স ১০৫! কেরালার এই শতায়ু বৃদ্ধা ভাগীরথী আম্মা তখনই বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, ইচ্ছে ও চেষ্টা থাকলে বয়স একটা সংখ্যামাত্র। এবার তাঁর সেই চেষ্টায় সাফল্যের মুকুট। ৭৪.৫ শতাংশ নম্বর পেয়ে পাশ করলেন তিনি।

ঘটনাটি ভারতের কেরালা রাজ্যে। এমন অনন্য কীর্তির সাথে সাথে কেরালা সরকার পরিচালিত রাজ্য শিক্ষা মিশনের বয়স্কতম শিক্ষার্থী হিসেবে তকমা পেলেন তিনি। ভারতের ইতিহাসে এমন ঘটনা এই প্রথম।

দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, কেরালার কোল্লাম জেলার বাসিন্দা ভাগীরথীর বিশাল পরিবার। ছয় ছেলে ও ১৬ জন নাতি-নাতনি আছে তার। খুব ছোটবেলায় বিয়ে হয়ে যায় তার। তার পরে তিনি মা হলে বন্ধ হয়ে যায় পড়াশোনাও। যখন পড়া ছাড়তে হয় তখন তিনি পড়তেন তৃতীয় শ্রেণিতে।

সন্তানের দেখাশোনা করার কারণেই বন্ধ করতে হয় তার পড়া। যদিও স্বপ্ন দেখা বন্ধ হয়নি। চিরকালই ইচ্ছে ছিল ফের পড়াশোনা করবেন। কিন্তু সংসারের পাকেচক্রে জড়িয়ে তা আর হয়ে ওঠেনি। কিন্তু সেই স্বপ্নকে হাতিয়ার করেই শেষমেশ লড়ে গেলেন তিনি। গত বছর ভর্তি হন স্কুলে। ক্লাস ফোরের পড়াশোনা শুরু করেন তিনি। পরীক্ষাও দেন। রেজাল্ট বেরোল সেই পরীক্ষার। দুরন্ত সাফল্যের সঙ্গে পাস করলেন তিনি।

ভাগীরথীর এই ফলাফল দৃষ্টান্তস্বরূপ। তিনি বুঝিয়ে দিলেন, ইচ্ছে ও চেষ্টা থাকলে বয়স একটা সংখ্যামাত্র। কেরালার রাজ্য শিক্ষা দপ্তর মনে করছে, রাজ্যের অন্য মানুষরাও তাকে দেখে শিক্ষার প্রতি আগ্রহী হবে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন