'সত্যিকারের ধানের শীষ আর হাতপাখা নিয়ে প্রচার করা চলবে না'

  

পিএনএস ডেস্ক:নির্বাচনী প্রচারে বিএনপি সত্যিকারের ধানের শীষ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সত্যিকারের হাতপাখা ব্যবহার করতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

তিনি বলেন, কোনও দলের নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার সময় প্রতীকের প্রতিকৃতি ছাড়া অন্য কোনও কিছু ব্যবহার করা যাবে না।

বৃহস্পতিবার(২৪ মে) বিকেলে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে আয়োজিত এক সভা শেষে হেলালুদ্দীন আহমদ এ কথা বলেন। ফলে এখন থেকে নির্বাচনী প্রচারে বিএনপি সত্যিকারের ধানের শীষ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সত্যিকারের হাতপাখা ব্যবহার করতে পারবে না।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, যেকোনো ধরনের প্রতীকের প্রতিকৃতি ছাড়া অন্য কিছু ব্যবহার করা যাবে না। যেমন, একটি আনারস ব্যবহার করা যাবে না। হাতি ব্যবহার করা যাবে না। হাতি বা আনারসের প্রতিকৃতি ব্যবহার করা যাবে।

তাহলে বিএনপিও সত্যিকারের ধানের শীষ ব্যবহার করতে পারবে না- সাংবাদিকদের এক বক্তব্যের জবাবে ইসি সচিব বলেন, আমরা ওই ভাবে ভেবে করিনি। আমরা এভারেজে ভেবে করছি। এভারেজে যেকোন ধরনের প্রতীকের প্রতিকৃতি ব্যতিত অন্য কিছু ব্যবহার করতে পারবে না।

সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে নিয়োগ পাওয়া নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে ২০১১ সালে জীবন্ত প্রাণী নিয়ে নির্বাচনী প্রচারে নিষেধাজ্ঞা দেয়। এর আগ পর্যন্ত হাতি, ঘোড়া, ময়ূর বা গোরগ মার্কার প্রার্থীরা এসব প্রাণী নিয়ে মিছিল বের করতেন। কিন্তু সাত বছর ধরে এসব বন্ধ হয়ে গেছে।

নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তে ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের ক্ষেত্রে কী হবে? এর তো কোনও প্রতিকৃতি নেই- এমন প্রশ্নে নির্বাচন কমিশন সচিবের সুস্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি কোনও জবাব না দিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech