আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আ. লীগ গণসংবর্ধনা দেবে - জাতীয় - Premier News Syndicate Limited (PNS)

আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আ. লীগ গণসংবর্ধনা দেবে

  

পিএনএস ডেস্ক: দেশের উন্নয়ন ও অর্জনের জন্য আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আজ দলটির পক্ষ থেকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে।

শনিবার (২১ জুলাই) বিকেল তিনটায় রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ক্ষমতাসীন দলের পক্ষ থেকে গণসংবর্ধনা দেয়া হবে দলের প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। দেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে এ গণসংবর্ধনাকে স্মরণীয় করে রাখতে চায় দলটি।

গণসংবর্ধণা অনুষ্ঠানকে সফল করতে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। এ অনুষ্ঠানে কয়েক লক্ষ লোকের সমাগম হবে বলে ধারণা করছেন ক্ষমতাসীন দলের নেতারা।

ইংরেজী বর্ণ এল আকৃতিতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নির্মাণ করা করা হয়েছে বিশাল প্যান্ডেল হয়েছে। অনুষ্ঠান স্থলে ত্রিশ হাজার চেয়ার বসানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর গণসংবর্ধনায় ঢাকাসহ আশেপাশের জেলার নেতা-কর্মীরা যেমন যোগদান করবেন তেমনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ যোগদান করবেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

আওয়ামী লীগ সভাপতিমন্ডলীর সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের জাতীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।

মঞ্চে উপস্থিত থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একমাত্র ছেলে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। বিকেল তিনটা থেকে গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠান আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হবে। অনুষ্ঠানের শুরুতে বাঙ্গালীর ইতিহাস ও ঐতিহ্য সংবলিত ত্রিশ মিনিটের একটি পরিবেশনা থাকবে।

আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল জানান, বিকেল তিনটায় আওয়ামী লীগের গণসংবর্ধনা শুরু হলেও দুপুর বারোটা থেকে লোকজন আসা শুরু করবে। দুপুর ১২ টা থেকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হবে। দেশের বরেণ্য শিল্পীরা এতে সংগীত পরিবেশন করবেন।

তিনি জানান, গণসংবর্ধনায় আসার জন্য ইতোমধ্যে সকল রাজনৈতিক দলের নেতাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ এ গণসংবর্ধনায় যোগদান করবেন।

এ সভায় আওয়ামী লীগের মন্ত্রীপরিষদের সদস্যরা নিজ নিজ মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন ও অর্জনের চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য রাখবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। এ গণসংবর্ধনা আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি করবে বলে আশা প্রকাশ করছেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

ভারতের আসানসোলের কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডি-লিট ডিগ্রী অর্জন, মহাকাশে সফলভাবে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট পাঠানো, অষ্ট্রেলিয়ার সিডনি থেকে গ্লোবাল উইমেন্স লিডারশীপ অ্যাওয়ার্ড অর্জন ও স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত করায় এ গণসংবর্ধণার আয়োজন করছে দলটি।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech