গরুর নাম মহারাজ : দাম ২৪ লাখ!

  

পিএনএস (মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম প্রধান) : ঈদ-উল আযহা ২২ আগস্ট। জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি এ তারিখ ঘোষণা করেছে। এ ঈদে এক কোটির বেশি পশু কোরবানি হবে। দেশের খামারিরা এবার প্রয়োজনীয় পশু প্রাকৃতিক উপায়ে মোটাতাজা করেছেন, যা জোগান দেওয়া হবে।

ইতিমধ্যে টিভি মিডিয়ায় মহারাজ নামের একটি গরুর ছবি বেশ সাড়া ফেলেছে। মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ার এক খামারি এটি পালন করছেন। গত বছর কোরবানিতে এর দাম উঠেছিল ১৪ লাখ। মালিক বিক্রি করেননি। এবার এটি ২৪ লাখ টাকায় বিক্রি করবেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

৩৯ মণ ওজনের এ বলদটি দেখতে অনেকেই ভিড় করছেন খামারির বাড়িতে। দেশীয় খাবার নিয়ম করে গরুটিকে খাওয়ানো হচ্ছে। বৈদ্যুতিক পাখা থেকে বাতাস দেওয়া হচ্ছে। বিদ্যুৎ না থাকলে নিজেরা পাখা দিয়ে গরুটিকে বাতাস করছে। এককথায় যত্নের বিন্দুমাত্র ত্রুটি নেই।

অসঙ্গতির কারণে ঈদে দেশের ৯০ শতাংশ মুসলমান কোরবানি দিতে পারেন না। বাকি ১০ শতাংশ কোরবানি দেন। কেউ সাতভাগের এক ভাগও দিতে পারেন না। অথচ অনেকে একাধিক শুধু নয়, বেশ কয়েকটা দেন। বিলান আত্মীয়স্বজন ও পরশীদের মধ্যে। কেউ কেউ পুরোটাই ফ্রিজে বোঝাই করেন।

কেউ না কেউ নিশ্চয় ৩৯ মণ ওজনের ২৪ লাখ টাকা দাম হাঁকানো মহারাজ নামের গরুটি কিনবেন। নেহাত কোরবানির জন্য হলেও অনেকে নিজের নাম ফাটানোর জন্য এটিকে কিনতে পারেন। হাটে হাট নাতিনের বিয়ের মতো অনেকটা। অনেকে বলেন, দুনম্বরি টাকা না হলে কিনা সম্ভব নয়। কিন্তু অনেক সৌখিন মালদার ব্যক্তি আছেন, যারা একদামেই কিনে থাকেন। সবাইকে এক পাল্লায় মাপা ঠিন নয়।

যে বা যাদের কোরবানি দেওয়ার সামর্থ আছে, তারা দেবেন। আর যারা সামর্থ রাখেন না- তাদের প্রতি সুনজর দেওয়া সামর্থবানদের নৈতিক দায়িত্ব। আত্মীয়স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশী কেউ যেন বাদ না যায় কোরবানির গোশতের হিস্যা থেকে। কোরবানি দাতাকেই খুঁজে খুঁজে নিজ দায়িত্বে একটা অংশ তাদের পৌঁছে দেয়া উত্তম। মনে রাখতে হবে, অনেকে এর জন্য আসে না।

কোরবানির দিনেও একজন মুসলমান যদি একটু গোশতের স্বাদ গ্রহণ করতে না পারে, তাহলে কোরবানিদাতাদের নিজের হক আদায় হলেও আত্মীয়স্বজন ও পরশীর হক কিন্তু অনাদায় থেকে যাবে। এ গোশত কিন্তু নিজের উদরপূর্ণ করার জন্য নয়। কোরবানি দিতে অসমর্থ ও অপারগদের কথা ভুলে গেলে চলবে না। মোটকথা, আত্মীয়স্বজন ও পরশীর হকের বিষয়টি মনে রাখতে হবে।

লেখক : বার্তা সম্পাদক- পিএনএস

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech