বাংলাদেশে সুষ্ঠু এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করে যুক্তরাষ্ট্র

  


পিএনএস ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে অবাধ, সুষ্ঠু এবং অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন প্রত্যাশা করে বলে জানিয়েছেন দেশটির দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক ব্যুরোর প্রিন্সিপ্যাল ডেপুটি অ্যাসিট্যান্ট সেক্রেটারি এলিস জি ওয়েলস।

বাংলাদেশ সফরকালে আসন্ন জাতীয় নির্বাচন এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এ বার্তা নিয়ে এদেশের বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে তার আলোচনা হয়েছে বলে জানান এ মার্কিন কর্মকর্তা।

সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান তিনি। ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

নিজের বক্তব্যে এলিস জি ওয়েলস বলেন, বাংলাদেশকে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের দেশ হিসেবেই বিবেচনা করে যুক্তরাষ্ট্র। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে যথেষ্ট অগ্রগতি সাধন করেছে। এই অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা এগিয়ে নেয়ার প্রয়োজনেই বাংলাদেশে আগামীতে অবাধ, সুষ্ঠু অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন জরুরি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ রয়েছে। এ ছাড়া আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের ক্ষেত্রে আইনি প্রক্রিয়ায় ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা হবে বলেও প্রত্যাশা করে যুক্তরাষ্ট্র।

রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়ে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় মর্যাদাপূর্ণ ও নিরাপদ প্রত্যাবাসন চায়। একইসঙ্গে রাখাইনে যে জাতিগত নিধনযজ্ঞ চালানো হয়েছে সে বিষয়েও তার দেশ সতর্ক রয়েছে। এছাড়া মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞার মতো বিষয়ে পরিকল্পনাও রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের।

ঐক্যফ্রন্টকে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন দিচ্ছে কি না জানতে চেয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কোনো দল বা জোটকে কখনই এককভাবে সমর্থন দেয় না। যুক্তরাষ্ট্র সার্বিকভাবে গণতন্ত্রের চর্চা ও গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া চলমান রাখতে সমর্থন ও সহযোগিতা দেয়।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech