অভিযোগ পেলেই তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: ইসি

  

পিএনএস ডেস্ক : চনী প্রক্রিয়ায় তারেক রহমানের অংশগ্রহণের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, আমাদের কাছে এখন পর্যন্ত এ ধরনের কোনো কিছু মনিটরিংয়ে নিজস্ব ক্যাপাসিটি নাই। যদি কেউ তথ্য-প্রমাণসহ আমাদের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করেন তাহলে আমরা আইনের মধ্যে থেকে যদি কিছু থাকে, তাহলে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বলব।

রোববার (১৮ নভেম্বর) রাজধানীর নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, আর যদি আইনের ভেতর কিছু না থাকে তাহলে আমরা নিজেরা বসে কী করতে পারি, সেটা পর্যালোচনা করে দেখে তারপর এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।

তারেক রহমান দেশে থাকলে ভিডিও কনফারেন্স করতে পারতেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার বলেন, দণ্ডপ্রাপ্ত হলে অবশ্যই তার জেলে কিংবা পলাতক থাকার কথা। জেলে থাকলে তার পক্ষে এমন কাজের সুযোগ নেই। জামিনে থাকলে কোনো অসুবিধা ছিল না। কিন্তু, তারেক রহমানের ক্ষেত্রটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। আইনের কাভারেজ কতটুকুম কি আছে, সেগুলো দেখে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

তফসিল ঘোষণার পর ইসিতে দেয়া বিএনপি নেতাকর্মীদের মামলার তালিকার বিষয়ে তিনি বলেন, তালিকাটি আমি দেখিনি। আমরা দেখে সত্যিকারের অর্থে যদি কোনো হয়রানিমূলক মামলা থাকে, তাহলে পুলিশ প্রশাসনকে নির্দেশনা দেব। কারণ, হয়রানিমূলক মামলা হলে নির্বাচনের পরিবেশ কিছুটা হলেও বিনষ্ট হবে।

নির্বাচনী প্রচারণা সম্পর্কে রফিকুল ইসলাম বলেন, রোববারের মধ্যে আগাম সব ধরনের নির্বাচনী প্রচারণা সরিয়ে ফেলতে হবে। যদি কেউ সরিয়ে না ফেলেন, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech