গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ

  



পিএনএস ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় চারজন মিলে ধানক্ষেতে নিয়ে গিয়ে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও ধর্ষণের সময় ধারণ করা ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে পুনরায় ওই গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলার মুকুন্দী গ্রামে গত ৫ মে এ ঘটনা ঘটলেও বৃহস্পতিবার ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।


ওই গৃহবধূর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গত ৫ মে রাতে আড়াইহাজার পৌরসভাধীন মুকুন্দী গ্রামের এক দিন মজুরের স্ত্রী (৩৫) দোকান থেকে সদাই আনার জন্য বাড়ি থেকে বের হলে পথে একই এলাকার সাহাদ আলীর ছেলে সেলিম (৩০), আব্দুস সালামের ছেলে মাঈনউদ্দিন (২৫), কফিলউদ্দিনের ছেলে সোহেল (২৭) ও নিজামউদ্দিনের ছেলে আবুল (২৬) তার গতিরোধ করে। তারা ওই গৃহবধূর মুখ চেপে ধরে পাশের একটি ধানক্ষেতে নিয়ে গণধর্ষণ করে। এ সময় তাদের মধ্যে একজন গণধর্ষণের ঘটনা মোবাইলে ভিডিও করে রাখে। পাশবিক নির্যাতনে ওই গৃহবধূ অজ্ঞান হয়ে পড়লে তাকে ঘটনাস্থলে ফেলে চলে যায় ধর্ষকরা। পরে জ্ঞান ফিরলে রাতে ওই গৃহবধূ একাই বাড়িতে আসেন।

এ ঘটনায় থানায় মামলা দেয়ায় চেষ্টা করলে ধর্ষক ও তাদের লোকজন ধর্ষণের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করার হুমকি দেয়। সম্প্রতি ধর্ষণের সেই ভিডিও প্রকাশের হুমকি দিয়ে ধর্ষকরা পুনরায় অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দিলে ওই গৃহবধূ বাধ্য হয়ে বৃহস্পতিবার চার ধর্ষকের বিরুদ্ধে আড়াইহাজার থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন।
আড়াইহাজার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের কয়েকটি টিম কাজ করছে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech