জন্ম-মৃত্যুর খবর ইসিতে জানাতে হবে, আইন চান সিইসি

  

পিএনএস ডেস্ক : কোনো শিশুর জন্মের পর কিংবা কেউ মারা গেলে, সে তথ্য থানা নির্বাচন কর্মকর্তাকে জানাতে হবে-এমন একটি আইন চাইলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদা। রোববার নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে (ইটিআই) আয়োজিত আগারগাঁওয়ে এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিইসি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেছেন, জাতীয় পরিচয়পত্রে (এনআইডি) সঠিক বয়স লিপিবদ্ধ করা এবং মৃত ভোটার তালিকা থেকে কর্তন করা একটা সমস্যা। এই সমস্যা থেকে উত্তোরণের জন্য শিশুর জন্মের পর এবং কেউ মারা গেলে সে তথ্য থানা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে মৌখিক বিবৃতি আকারে জানানোর বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে।

সিইসি বলেন, এনআইডি প্রাপ্তিও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কেননা, এটা না হলে কোনো সেবাই পাওয়া যায় না। প্রবাসীদের তো আরো বেশি প্রয়োজন। ভোটার তালিকার মাধ্যমে এনআইডি দেওয়া হচ্ছে। তাই ভোটার তালিকা করার সময় বয়সের সঠিকতা যাচাই সঠিক হতে হবে। সঠিক সত্য তথ্য না দিলো অনেক সমস্যা হয়ে যায়। দুঃখজনক যে জন্মনিবন্ধন কার্যকর নয়। যে কারণে ৪২ বছর বয়সের লোক ২৪, ২৪ বছর বয়সের লোক ৪২ হতে চায়। অনেকে বিএ পাস করার পর বলে পাসই করে নাই। নানা কারণে এটা করে থাকেন। এতে দেখা যায় ছেলের বয়সের চেয়েও ছোট হয়ে যায় বাবা।

ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম যুযোগপযোগী করা এবং ভোটার নিবন্ধন সংক্রান্ত ফরমসমূহ পুনর্বিন্যাসকরণ শীর্ষক কর্মশালায় ইসির অতিরিক্ত সচিব মো. মোখলেছুর রহমান সভাপতিত্ব করেন। এতে অন্য নির্বাচন কমিশনাররাও উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech