ঢাকায় উন্মুক্ত স্থানে ঈদের জামায়াত হচ্ছে না

  

পিএনএস : করোনা মহামারির কারণে এবার দুই সিটি করপোরেশন এলাকায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাত বন্ধ থাকবে। সরকারি নির্দেশনা মেনে মসজিদে ঈদ-উল-ফিতরের আনুষ্ঠানিকতা পালন করতে হবে রাজধানী ঢাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের।

প্রতি বছর ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকা জাতীয় ঈদগাহ প্রস্তুতিতে মাসব্যাপী চলে কর্মযজ্ঞ। নেয়া হয় ব্যাপক প্রস্তুতি। কিন্তু এবারের চিত্র ভিন্ন। প্রতি ঈদে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) পক্ষ থেকে রাজধানীর হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে জাতীয় ঈদগাহসহ মোট ৩২৫টি উন্মুক্ত স্থানে ঈদের জামায়াতের আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে প্রতি সাধারণ ওয়ার্ডে চারটি করে পুরুষ জামাত ও প্রতি সংরক্ষিত নারী আসনে ১টি করে মহিলাদের জন্য আলাদা ঈদের জামাতের আয়োজন করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন সংস্থার উদ্যোগে এবং স্থানীয়রা মিলে পাড়া মহল্লায় ঈদের জামাতের আয়োজন করে।

কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে এ বছর উন্মুক্ত স্থানে ঈদ জামাতের আয়োজন বন্ধ রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. ইমদাদুল হক বলেন, এ বছর উন্মুক্ত স্থানে ঈদের জামায়াতের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে কোন নির্দেশনা পাইনি। ঈদের জামায়াতের জন্য জাতীয় ঈদগাহ মাঠ প্রস্তুত করতে একমাস সময় লাগে, সে সময়ও এখন নেই। তাই এবার ডিএসসিসি এলাকায় উন্মুক্ত স্থানে কোন ঈদের জামায়াত হচ্ছে না। তবে সবাই মসজিদে ঈদের জামাত পড়তে পারবে।

দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন বলেন, এবার ঈদে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ঈদ জামায়াতের কোন আয়োজন করা হয়নি। তারপরও কেউ যদি করে থাকে তাহলে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ডিএমপি থেকে ব্যবস্থা নিবে। এখানে আমাদের কোন বিষয় নেই।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রধান সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা তাজিনা সারোয়ার বলেন, এবছর উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় কোন ঈদ জামায়াত হবে না। গত বৃহস্পতিবার মেয়র মহোদয়ের নেতৃত্বে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আমাদের একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেই সভায় মেয়র মহোদয় ডিএনসিসি আওতাধীন এলাকায় এবছর কোনো ধরণের ঈদ জামায়াত অনুষ্ঠিত না করার জন্য সবাইকে নির্দেশনা দিয়েছেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন