করোনাভাইরাসের ‘প্রতিষেধক’ বিক্রি করছিলেন তিনি

  

পিএনএস ডেস্ক : পিরোজপুর শহরের মন্ডলপাড়া এলাকায় সাইনবোর্ড টাঙিয়ে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক বিক্রির দায়ে শ্যাম দুলাল হালদার নামের এক হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসককে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ বুধবার দুপুরে পিরোজপুরের সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রামানন্দ পাল এ জরিমানা করেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, পিরোজপুর শহরের বাইপাস সড়কসংলগ্ন মন্ডলপাড়ায় রসময় হোমিও হলের মালিক শ্যাম দুলাল হালদার তাঁর চেম্বারের সামনে করোনাভাইরাসের চিকিৎসা দেওয়া এবং প্রতিষেধক বিক্রির সাইনবোর্ড টাঙিয়ে ওষুধ বিক্রি করছিলেন। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের নজরে এলে আজ দুপুরে পিরোজপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রামানন্দ পাল সেখানে অভিযান চালিয়ে সত্যতা পান। এরপর তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ওই হোমিও চিকিৎসককে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ২০০৯–এর ৪৪ ধারায় ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় ওই চিকিৎসক সাইনবোর্ড সরিয়ে নেন এবং জরিমানার টাকা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিয়ে ছাড়া পান।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) রামানন্দ পাল বলেন, বাংলাদেশসহ বিশ্বের কোথাও এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসের প্রতিষেধকের স্বীকৃত কোনো ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। ওই হোমিও চিকিৎসক সাইনবোর্ড টাঙিয়ে মিথ্য বিজ্ঞাপন দিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করায় তাঁকে জরিমানা করে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।-প্রথম আলো

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন