পাপুলের কাছে ঘুষ নেওয়ায় কুয়েতে মেজর জেনারেল বরখাস্ত

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশের সাংসদ কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল ও কুয়েতের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মেজর জেনারেল মাজেন আল জাররাহ

মানব পাচার ও অবৈধ মুদ্রা পাচারের সঙ্গে যুক্ত বাংলাদেশের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের সঙ্গে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে কুয়েতের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রণালয়ের এসিস্টেন্ট আন্ডার সেক্রেটারি মেজর জেনারেল মাজেন আল জাররাহকে বরখাস্ত করা হয়েছে। কুয়েতের উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং অভ্যন্তরীণ বিষয়ক মন্ত্রী আনাস আল সালেহ তাকে বরখাস্ত করেন।

আজ মঙ্গলবার কুয়েতভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আরব টাইমসের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত ৬ জুন কুয়েতে জনশক্তি রপ্তানিতে অনিয়ম এবং হাজার কোটি টাকা পাচারে অভিযুক্ত লক্ষ্মীপুর-২ আসনের এমপি কাজী শহীদ ইসলাম পাপুল আটক করে দেশটির ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)।

জিজ্ঞাসাবাদের সময় পাপুল জানান, কুয়েতের অন্তত সাতজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা তাকে মদদ জুগিয়েছেন। কুয়েত সরকারের এক আমলাসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ২১ লাখ দিনার (১ দিনারে ২৭৪ টাকা হিসেবে ৫৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকা) ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ তোলেন তিনি।

ভিসা–বাণিজ্যের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে কুয়েতে কর্মী নেওয়ার জন্য ওই ব্যক্তিদের ঘুষ দেন পাপুল। পাপুল আরও জানিয়েছেন, তিনজনের মধ্যে একজনের সঙ্গে তিনি এক পার্লামেন্ট সদস্যের দপ্তরে গিয়েছিলেন।

এর আগে আরব টাইমস এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পাপুল যাদের নাম প্রকাশ করেছেন, তাদের একজন কুয়েতের একটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত, অন্যজন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক আমলা আর শেষজন দেশটির এক নাগরিক।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন