পাপুলের এমপি পদ নিয়ে যে ব্যাখ্যা চাইলেন বিএনপির হারুন!

  

পিএনএস ডেস্ক: মানব পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে কুয়েতের কারাগারে বন্দি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের কাজী মোহাম্মদ শহীদ ইসলাম পাপুলের সংসদ সদস্য পদ নিয়ে স্পিকারের ব্যাখা চাইলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ। বুধবার (৮ জুলাই) জাতীয় সংসদ অধিবেশনের পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এ ব্যাখ্যা দাবি করেন তিনি।

এদিকে, এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক হলে তার সদস্যপদ বাতিল হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিএনপির এমপি হারুনুর রশিদ বলেন, সংবিধানের ৬৬ নম্বর অনুচ্ছেদে সংসদে নির্বাচিত হওয়ার যোগ্যতা ও অযোগ্যতা সম্পর্কে যে বিষয়টি রয়েছে, সেখানে বলা আছে, যদি কোনো সাংসদ কোনো বিদেশি রাষ্ট্রের নাগরিকত্ব অর্জন করেন কিংবা কোনো বিদেশি রাষ্ট্রের আনুগত্য স্বীকার করেন, তিনি সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচন করার যোগ্য হবেন না।

হারুনুর রশিদ বলেন, ‘আমাদের জাতীয় সংসদের একজন সদস্য পাপুল। আজ সব পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে, পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, পাপুল কুয়েতের নাগরিক হিসেবে সেখানে গ্রেপ্তার হয়েছেন। আজ যদি তিনি সত্যিই কুয়েতের নাগরিক হিসেবে অভিহিত হয়ে থাকেন, তাহলে এ ব্যাপারে স্পিকার সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা আপনাকে দিতে হবে। কারণ, নিশ্চয়ই পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করেই বলেছেন।’

হারুনুর রশিদ বলেন, ‘আজকের সব পত্রিকায় নিউজ আছে ইমিগ্রেশনে পাপুল যে পাসপোর্ট ব্যবহার করে কুয়েত গেছেন, তা সরকারি পাসপোর্ট নয়। তাহলে তিনি নিঃসন্দেহে বিদেশি নাগরিক এবং বিদেশি নাগরিক হিসেবে আত্মসমর্পণ করেননি। তথ্য গোপন করেছেন নির্বাচনের সময় এবং আজ তিনি অপকর্মের সঙ্গে জড়িত হয়েছেন। সুতরাং এ ব্যাপারে আমাদের সংবিধান অনুযায়ী যে দায়িত্ব আপনার, আমি আশা করব, স্পিকার এ ব্যাপারে আপনার জায়গা থেকে ঘোষণা থাকা দরকার।’

মানব পাচারের মাধ্যমে শত কোটি টাকা আত্মসাত এবং এ কাজে ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে গ্রেপ্তারের পর সাংসদ পাপুলকে কুয়েতের পুলিশ রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে তাকে সে দেশের কারাগারে পাঠায়। আদালতে তার বিচারের প্রস্তুতি চলছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন