‘তারেকের কাছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে দেখাক’ - রাজনীতি - Premier News Syndicate Limited (PNS)

‘তারেকের কাছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে দেখাক’

  

পিএনএস ডেস্ক : আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেছেন, তারেক রহমানের কাছে কোনো বাংলাদেশি পাসপোর্ট থাকলে এটি বিএনপি আগে দেখাক।

আজ সোমবার বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানান স্বপন।

গতকাল রোববার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ভারত সফরে যান। এরপর থেকে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, তারেক রহমান ১/১১-এর সময় মুচলেকা দিয়ে বিদেশে যাওয়ার পরে একবার তিনি বাংলাদেশ হাইকমিশন থেকে পাসপোর্ট নবায়ন করেছেন। এরপরে তিনি ব্রিটেনের হোম অফিসের মাধ্যমে বাংলাদেশ দূতাবাসে তাঁর পাসপোর্ট সারেন্ডার করেন।

তারেক রহমান তাঁর বাংলাদেশি পাসপোর্ট লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে জমা দিয়েছেন বলে সম্প্রতি বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানান।

আজই এক সংবাদ সম্মেলন করে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর ওই বক্তব্যকে চ্যালেঞ্জ করে বিএনপি। রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, তারেক রহমান যদি পাসপোর্ট জমা দিয়েই থাকেন, তাহলে তা দেখান।

সকালে রিজভীর এ বক্তব্যের পরই আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এর পাল্টা বক্তব্য এল।

বিএনপির উদ্দেশে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারেক রহমান বাংলাদেশের পাসপোর্ট নবায়ন করার জন্য বাংলাদেশ হাইকমিশনে কোনো আবেদন করেছেন কি না, এটা যদি বিএনপি দেখাতে পারে—আমরা তাদের বক্তব্যকে স্বাগত জানাব।’ তিনি আরও বলেন, মূলত তারেক রহমান বাংলাদেশের পাসপোর্ট সারেন্ডার করেছেন এবং তিনি ব্রিটেনে এখন কী স্ট্যাটাসে আছেন, এটা আপনারা সবাই জানেন।

এক প্রশ্নের জবাবে আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কোনো মিথ্যাচার করেননি। তিনি সত্য তথ্য উপস্থাপন করেছেন। এ বিষয়ে যদি কোনো আইনি নোটিশ দেওয়া হয়, সে নোটিশ পাওয়ার পর সেটি অবশ্যই যথাযথ প্রক্রিয়ায় জবাব দেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সত্য তথ্য প্রকাশ করেছেন, সত্য তথ্য প্রকাশ করার জন্য যদি ক্ষমা চাইতে হয়, তাহলে সেটা দুর্ভাগ্যজনক বিষয়।

আজ সোমবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমকে আইনি নোটিশ দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তারেকের পক্ষে দলের আইনবিষয়ক সম্পাদক আইনজীবী কায়সার কামাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঠিকানায় আইনি নোটিশটি পাঠান। নোটিশ পাওয়ার ১০ দিনের মধ্যে হয় বক্তব্যের সত্যতা প্রমাণ করতে হবে, নয়তো ক্ষমা চাইতে হবে। এর কোনোটিই না করলে প্রতিমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে। এই আইনি নোটিশের বিষয়ে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এ মন্তব্য করেন।

সংবাদ সম্মেলনে সাংসদ আবু সাঈদ বলেন, ‘আমরা অবাক বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ করছি, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এবং লন্ডনে পলাতক সাজাপ্রাপ্ত তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনা সম্পর্কে নানা রকম মিথ্যাচার ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন বিএনপির নেতারা।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আবু সাঈদ বলেন, জিয়া পরিবার ধ্বংসের চক্রান্ত করা হচ্ছে বলে সরকারের প্রতি হাস্যকর-মনগড়া অভিযোগ করেছেন রিজভী। প্রকৃতপক্ষে জিয়া পরিবার ধ্বংসের নায়ক স্বয়ং তারেক রহমান। জিয়া পরিবার ধ্বংসের কোনো অভিপ্রায় সরকার বা আওয়ামী লীগের নেই। তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত এবং আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের মদদদাতা তারেক রহমান। সেই দল ধ্বংসের জন্য অন্য কোনো শক্তির প্রয়োজন নেই। আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না।’

এ সময় বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে ‘হাইড্রোলিক টকিং ডল’ আখ্যা দিয়ে স্বপন বলেন, ‘প্রতিদিন মিডিয়ার সামনে শব্দসন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছেন। আপনারা দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকার পরও জিয়া হত্যার বিচার করতে পারেননি কেন? এমনকি ক্যাবিনেটে সিদ্ধান্ত নিয়ে জিয়া হত্যা মামলাকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছেন।’ এ সময় ব্রিটিশ সরকারকে অবিলম্বে তারেক রহমানকে বাংলাদেশের হাতে সোপর্দ করার আহ্বান জানান তিনি।

আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায়বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, শিক্ষা ও মানবসম্পদবিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার চাপা, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, উপদপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, নির্বাহী সদস্য আনোয়ার হোসেন, ইকবাল হোসেন প্রমুখ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/জে এ/মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech