ঢাবিতে কড়া পাহাড়া বসিয়েছেন সোহাগ-জাকির

  

পিএনএস ডেস্ক : ছাত্রলীগের ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া ছাত্রলীগের ২৯ তম সম্মেলন সম্পন্ন হলেও শীর্ষ নেতা বাছাই এখনো শেষ হয়নি।


যেকোনো মুহুর্তে সংগঠনটির অভিভাবক নতুন কমিটি ঘোষণা করতে পারেন। তবে ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি এম সাইফুর রহমান সোহাগ এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের নেতৃত্বে কোটা সংস্কার/ বাতিল আন্দোলনের নামে কেউ যেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অরাজকতা চালাতে না পারে সেজন্য কড়া পাহাড়া বসিয়েছেন।

যেকোনো মূল্যে ঢাবির পরিস্থিতি শান্ত রাখতে তারা এ পাহাড়া বসিয়েছেন বলে জানিয়েছেন এস এম জাকির হোসাইন।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি মহল উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে অস্থিতিশীল করার পায়তারা করছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার পরও তারা সাধারণ শিক্ষার্থীদের নামে শিবির-ছাত্রদলকে দিয়ে ক্যাম্পাসের মধ্যে অরাজকতা করতে চাচ্ছে। তাদের প্রতিহত করতে ছাত্রলীগ দিন রাত মাঠে থাকবে।

এদিকে, ছাত্রলীগের নতুন নেতা হবার আগেই দুইজন প্রার্থী আজ মধুর ক্যান্টিনে বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যে চেয়ারে বসেন সেখানে বসেছেন এবং ব্যাপক শো-ডাউন করেছেন। এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে যদি কেউ নিজেকে মাননীয় নেত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার আগে এমনটা করে থাকেন তাহলে বোকামি করছেন।

ছাত্রলীগের কমিটি কবে নাগাদ হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে সভাপতি এম সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, এখনো যাচাই বছাই চলছে। যথা সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা তা ঘোষণা করবেন।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech