ঘোষণার আগেই সহ-সভাপতি প্রচার, নিউজ সরিয়ে নিতে এস এম জাকিরের নামে ফোন!

  

পিএনএস, জ্যোষ্ঠ প্রতিবেদক : ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দুই দিনের সম্মেলন শেষ হতেই নতুন বির্তক তৈরী হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই পদ পেয়েছেন বলে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। এমন অভিযোগ অনুসন্ধানে পিএনএস টিম কাজ করছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্যাড যারা পদ পেয়েছেন বলে দাবী করছিলেন তাদের নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে পিএনএস।

সংবাদটি প্রকাশের পর পিএনএস এর ব্যবস্থপনা পরিচালক ও সম্পাদকের কাছে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন পরিচয় দিয়ে ফোন করে নিউজ বন্ধ করতে বলা হয়। এবং সিলেট বিভাগের একটি লোকাল পত্রিকার সম্পাদক পরিচয়ে এরকম একটি ফোন আসে।

ফোনে বলা হয় আমি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির বলছি, আপনার সাইট ছাত্রলীগ নিয়ে, একটি নিউজ গিয়েছে এটা সরিয়ে নিন। প্রধামন্ত্রী দেখলে মাইন্ড করবেন। তখন পিএনএস এর সম্পাদক বলেন, আপনি জাকির এর প্রমাণ কি? উত্তরে বলেন, আপনার মনে হয় না আমি জাকির? পিএনএস এর সম্পাদক বলেন, না। এর পর ফোনটি কেটে দেন।

এ বিষয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের সাথে যোগাযোগ করা হলে পিএনএসকে তিনি বলেন, আমি কেন নিউজ বন্ধ করার জন্য ফোন দেব। আমার নাম্বার তো এটাই। অন্য কোনো নাম্বার দিয়ে আমি ফোন দেই না।এবং আমি তো আপনাকে চিনি। আপনিও আমার নাম্বার জানেন।

যে রিপোর্ট প্রকাশের পর ফোন আসে
ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার আগেই সহ-সভাপতি প্রচার!
ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দুই দিনের সম্মেলন শেষ হতেই নতুন বির্তক তৈরী হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই পদ পেয়েছেন বলে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

অভিযোগ রয়েছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের একজন সদস্য মো. জীবন রহমান নিজের ফেসবুক আইডিতে কেন্দ্রী ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পদ পেয়েছেন বলে প্রচার করছেন। ফেসবুকে অনেকের আইডিতে ইনবক্স করছেন সহ-সভাপতি পদ পেয়েছেন দাবী করছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্যাডে মো. জীবন রহমানকে সহ-সভাপতি করে সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ এবং এস এম জাকির হোসাইনের স্বাক্ষর রয়েছে। এবং জীবন রহমানের আইডিতে আমিনুল ইসলাম সাবেক সহ-সভাপতি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগ তার আইডিতে একই রকম প্যাডে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পদ পেয়েছেন বলে দাবী করছেন।

এ বিষয় জীবন রহমানের সাথে বিকেল ৩টা ৩২ মিনিটে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি পিএনএসকে জানান, অন্য একজন ভুল করে তার আইডেতে সহ-সভাপতি লিখেছে। আমি প্রচার করিনি এবং ভুলে সহ-সভাপতি হয়েছি।

তাহলে কিভাবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত প্যাডে সহ-সভাপতি হলেন?

এই প্রশ্নের সাথে সাথে তিনি ফোন কেটে দেন। এ বিষয়ে তার তরফ থেকে চুড়ান্ত কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে এ বিষয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ অবগত হলে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের অনুমতিক্রমে দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা অন্য যে কোন মাধ্যমে অনেকেই বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বা অন্য কোন পদ পেয়েছে বলে দাবী করছেন।

এ রকম কাউকে পদ দেওয়া হয়নি। তবে কেউ যদি পদ পেয়েছে বলে দাবী করে তাতে বিভ্রান্ত না হওয়ার কথা বলেন। এবং এস এম জাকির হোসাইন ও তাঁর আইডিতে বিভ্রান্ত না হওয়ার কথা বলেন।

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech