‘কারো মাথায় উকুন হলে সেটা যদি বিএনপি পোকামাকড় বলে’

  

পিএনএস ডেস্ক : কারাগারে বন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে পোকামাকড়ে কামড়াচ্ছে বিএনপির এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, কারাগারে খালেদা জিয়াকে অত্যন্ত পরিপাটি একটি রুমে রাখা হয়েছে। সেখানে পোকামাকড় কামড়ানোর প্রশ্নই আসে না।

এখন কারো মাথায় উকুন হলে সেটা যদি বিএনপি পোকামাকড় বলে? তাহলে আমাদের করার কিছু নেই। কারো মাথার উকুন পরীক্ষা করে ফেলে দেয়ার দায়িত্ব নিশ্চয়ই কারা কর্তৃপক্ষ বা ডাক্তারের নয়।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের পার্শ্ববর্তী নির্বাচনী অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. হাছান বলেন, বেগম খালেদা জিয়া কোন রাজবন্দী নন, তিনি দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত একজন বন্দি। যেখানে কোন রাজবন্দীরাও এতো সুযোগ পায়নি সেখানে তিনি তার পছন্দনীয় গৃহপরিচারিকা ফাতেমাকে সাথে রাখার পাশাপাশি রুমে থেকে টেলিভিশন, ফ্রিজ, দৈনিক সংবাদ পত্রসহ আধুনিক সব সুযোগ সুবিধাই উপভোগ করছেন। নিয়মিত ব্যাক্তিগত চিকিৎসক দ্বারা স্বাস্থ্য পরিক্ষা করাও হচ্ছে তার। সুতরাং বেগম জিয়া দুর্নীতিগ্রস্থ আসামীর তুলনায় কারাগারে নজিরবিহীন সুযোগ সুবিধা উপভোগ করছেন।

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বলেন, যে সংগঠনটি (বিএনপি) আন্তর্জাতিকভাবে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। সেই সংগঠনটি সকাল-বিকাল মিথ্যা অভিযোগ তুলে জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপদফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী সদস্য মারুফা আক্তার পপি প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, বুধবার ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির রুহুল কবির রিজভী বলেন, কারাগারে অসংখ্য পোকামাকড়ে আকীর্ণ কক্ষটিতে খালেদা জিয়া নরকবাস করছেন। পোকামাকড়ের দংশনে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech