সরকারের উদ্দেশে বি চৌধুরীর ১০ প্রশ্ন!

  

পিএনএস ডেস্ক :যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান এবং বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশ প্রতিবাদী জাতি, বাংলাদেশ স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছে, বাংলাদেশ পাকিস্তানি স্বৈরাচার বরদাশত করে নাই, প্রতিবাদ করেছে। এখনো করবে।

শনিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে যোগ দিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় সরকারের উদ্দেশে ১০টি প্রশ্ন রাখেন বি চৌধুরী। তিনি বলেন,

এই সরকারের কাছে জনগণের প্রশ্ন, যে স্বাধীনতা আনতে লক্ষ লক্ষ মানুষ শহীদ হয়েছে, লক্ষ লক্ষ মা-বোনকে ইজ্জত দিতে হয়েছে, এর মূল্যবোধ কেনো পদদলিত?
দিন-রাত প্রতিটি ঘন্টা নিয়ে কেন মা-বোনেরা আতংকে থাকবে? কেনো পুলিশ, র্যা ব, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী অপরাধীদের ছাড় দিবে?
কেনো ঘুষ দুর্নীতিকে ‘স্পিড মানি’ বলে সরকারিকরণ করা হলো? সমস্ত জাতির নৈতিকতাবোধকে পদদলিত করা হলো? এই অধিকার কে দিয়েছে আপনাদের?
নিরাপদ সড়কের দাবিতে কচি-কিশোরদের রাস্তায় নামতে হবে কেনো?
কোটা সংস্কারের পক্ষে মেধাবী ছাত্রদের কেনো আন্দোলন করতে হবে? মেধাবী ছাত্রদের কী অপরাধ? কেনো তাদের গুণ্ডা দিয়ে, হাতুড়ি-চাপাতি দিয়ে আক্রমণ করা হবে? এজন্যই কি স্বাধীনতা?
আপনাদের অপরাধের প্রতিবাদে কথা বলার জন্য সভা-সমাবেশ করার জন্য পুলিশের অনুমতি কেন নিতে হবে? অথচ আপনারা যখন-তখন, যত্রতত্র সভা সমাবেশ করতে পারেন।
কেনো আমার ভোট আমি দিতে পারবো না? ভোটের অধিকারকে কেনো দলীয়করণ করা হলো? সারা পৃথিবীতে ইভিএম পরিত্যক্ত, ইভিএম কেউ চায় না। কেনো আপনাদের সুবিধার জন্য ইভিএম গ্রহণ করতে হবে?
কেনো সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের দলীয়করণ করা হলো? কেনো তাদের সবসময় ভয়-ভীতির মধ্যে রাখা হচ্ছে কেনো?
স্বাধীন দেশের মা-বোনদের ও শিশুদের উপর কেন নির্যাতন হচ্ছে?
আমাদের রাষ্ট্র তুমি কোথায়? আমাদের স্বাধীনতাযুদ্ধের সঙ্গী আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র কোথায়? কেনো গঙ্গার পানি পাবো না? কেনো বন্ধু রাষ্ট্র তিস্তার পানি দিবে না?

বক্তব্যকালে বর্তমান সরকার গত ১০ বছরে স্বেচ্ছাচারীতার উদাহরণ সৃষ্টি করেছে অভিযোগ করে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তির সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech