মেয়ের বিয়েতে থাকছেন না ম্যারাডোনা

  

পিএনএস ডেস্ক: কন্যা আর বর্তমান স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব ফুটবলের রাজপুত্র দিয়াগো ম্যারাডোনাকে আবারও আলোচিত করে তুলেছে। ঘটনাটি ঘটেছে তার মেয়ের বিয়েকে কেন্দ্র করে। ম্যারাডোনার প্রথম পক্ষের বড় মেয়ের ডালমার বিয়ে এই এপ্রিলে আন্দ্রেস ক্যাল্ডারেলির সঙ্গে। কিন্তু মেয়ের বিয়েতে না যাওয়ার কথা জানিয়েছেন বাবা। কারণ ,ডালমা বাবার বতর্মান স্ত্রী অর্থাৎ সৎমাকে আমন্ত্রণ জানাননি। আর তাতেই রেগে গিয়েছেন ম্যারাডোনা। মেয়ের বিয়েতে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রোসিয়ো অলিভিয়া আমার স্ত্রী। কিন্তু তাকে আমন্ত্রন জানানো হয়নি। একারণে আমি বিয়েতে যাচ্ছি না।

ম্যারাডোনার বক্তব্য নিয়ে আর্জেন্টিয়ার গণমাধ্যমগুলোতে তুমুল আলোচনা চলছে।

বিয়ের বিয়েতে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটল ম্যারাডোনা বলেন, ডালমাই একমাত্র কনে নন যার বিয়েতে তার বাবা উপস্থিত থাকছে না।

আর্জেন্টিনা দলের পক্ষে প্রথম বিশ্বকাপ জয়ী এই তারকা ফুটবলারের প্রথম স্ত্রী ছিলেন ক্লডিয়া ভিলাফ্যানে। সেই ঘরে তাদের দুইটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বর্তমান স্ত্রী অলিভিয়ার সঙ্গেও তার আরও তিনটি সন্তান রয়েছে।

মেয়ের বিয়েতে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও মেয়ের প্রতি তার ভালবাসা প্রকাশ করতে দ্বিধা করেননি ম্যারাডোনা। তিনি বলেন, 'এটা আমার জন্য খুব দুঃখজনক। আমার শরীরে,ত্বকে ডালমার নামে ট্যাটু আছে। আমি আমার মেয়েকে খুব ভালবাসি। তাই তার নামে ট্যাটু করিয়েছি। ওর মতোই আমি আমার অন্য সন্তানদের ভালবাসি। সিদ্ধান্তটা নিতে খুব কষ্ট হয়েছে। কিন্তু আমি নিরুপায় হয়েই এমন সিদ্বান্ত নিয়েছি। আমার কাছে অন্য কোনো পথ খোলা নেই।’

সূত্র : ডেইলি সান

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech