২৩ রানে ৫ উইকেট হারাল বাংলাদেশ

  

পিএনএস ডেস্ক : একটার পর একটা রেকর্ড নিজের করে নিলেও টানা তিন ম্যাচে সেঞ্চুরির সুবাস পেয়েও তিন অঙ্কে পৌঁছাতে পারলেন না তামিম ইকবাল। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফিরতি ম্যাচে তাঁর ধীর-স্থির ইনিংসের মধ্যেই মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছেন। এর অল্প পরেই ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬ হাজার রান পূর্ণ করলেন বাংলাদেশের ওপেনার। কিন্তু ৭৬ রানে গ্রায়েম ক্রেমারের বলে স্টাম্পিংয়ের শিকার হন তামিম।

শুরুতেই এনামুল হকের বিদায়ের পর সাকিব আল হাসানকে সঙ্গে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ১০৬ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দিয়েছিলেন তামিম। আগের দু্ই ম্যাচেই ৮৪ রান করে আউট হলেও আজ তাঁর সেঞ্চুরির অপেক্ষায় ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটমোদীরা। কিন্তু ডাউন দ্য উইকেটে এসে ক্রেমারকে উইকেট উপহার দেন বাংলাদেশের এ ওপেনার। এ প্রতিবেদন লেখার সময় ৪৩ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ৮ উইকেটে ১৭৫।

ব্যাট করছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান (৬*) ও সানজামুল ইসলাম (১৯*)। দলীয় ১৪৭ রানে তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে বাংলাদেশের। আউট হন মুশফিকুর রহিম (১৮)। এরপর ২৩ রানের ব্যবধানে আরও ৫ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এ সময় আউট হয়েছেন মাহমুদউল্লাহ (২), তামিম, সাব্বির (৬), নাসির (২) ও মাশরাফি (০)।


সাকিব ব্যক্তিগত ৫১ রানে স্টাম্পড হয়ে ফিরেছেন সিকান্দার রাজার বলে। তামিমের সঙ্গে ৩৫ রানের ছোট্ট একটা জুটি গড়ে ফিরেছেন মুশফিকও (১৮)। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ফিরেছেন ক্রেমারের বলে এলবিডব্লু হয়ে ফিরেছেন মাহমুদউল্লাহ। সাব্বির ও নাসিরকে তুলে নেন কাইল জার্ভিস।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই বাংলাদেশের ওপেনার এনামুল হককে (১) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন জিম্বাবুয়ে পেসার কাইল জার্ভিস। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটের যুগলে দলকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যান তামিম ও সাকিব।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech