বরফের মাঠে আফ্রিদির কাছে শেহবাগের হার

  

পিএনএস ডেস্ক: ক্রিকেটের নতুন ভার্সন টি-টেন ক্রিকেটের পর পরই আলোচনায় এলো বরফের মাঠে ক্রিকেট খেলা। গত বছরের নভেম্বরেই সর্বপ্রথম প্রকাশ পায় বরফের রাজ্যে ক্রিকেট খেলতে নামবেন বিশ্বের নামিদামি ক্রিকেটাররা।

যারা এক সময় পুরো বিশ্বের মাঠগুলো মাতিয়েছেন। প্রথমে কল্পনায় থাকলেও তা বাস্তবে নিয়ে এলেন ক্রিকেটাররা। অবশেষে বরফের রাজ্যেই ক্রিকেট গড়ালো। আর সেখানে শেহবাগের দলকে হারিয়ে দিলো আফ্রিদির দল।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সুইজারল্যান্ডে সেইন্ট মরিতজ আইস ক্রিকেট টুর্নামেন্টের দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বীরেন্দ্র শেহবাগের প্যালেস ডায়মন্ড। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৪ রান করে শেহবাগের দল।

ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৩৮ রানে শ্রীলঙ্কার তিলকারত্নে দিলশান পাকিস্তানের অলরাউন্ডার আবদুল রাজ্জাকের বলে ইলিয়টের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলে প্রথম উইকেটের পতন ঘটে। এরপর আফ্রিদি দলীয় ৫৫ রানে মাহেলা জয়াবর্ধনেকে ফেরালে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে। এর এক রান পরই রান আউটের শিকার হয়ে ফিরে যান মাইক হাসি।

অপরপ্রান্তে ওপেনিংয়ে নামা বীরেন্দ্র শেহবাগ অধিনায়কোচিত ইনিংস খেলে ৩১ বলে ৪ চার ও ৫ ছয়ের সাহায্যে ৬১ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। এরপর অস্ট্রেলিয়ার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস ৩০ বলে করেন ৪০ রান করলে নির্ধারিত ওভার শেষে দলীয় রান দাঁড়ায় ১৬৪।

রয়্যালসের পক্ষে পাকিস্তানের আবদুল রাজ্জাক ৪, শোয়েব আক্তার ২, শহীদ আফ্রিদি ও নাথান ম্যাককালাম ১টি করে উইকেট নেন।

জবাবে মাত্র ১৫.২ ওভারেই নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌঁছে যায় রয়্যালস। এদিন আফ্রিদি অবশ্য ঝড় তুলতে পারেননি। শূন্য রানেই আউট হয়েছেন। তবে তার অভাব পূরণ করে দেন সাবেক ইংলিশ তারকা ওয়াইজ শাহ। ৩৪ বলে ৫ চার ও ৭ ছয়ের সাহায্যে ৭৪ রান করে অপরাজিত থাকেন। অনবদ্য এ ইনিংসটির জন্য প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচও নির্বাচিত হন।

প্যালেস ডায়মন্ডের পক্ষে ভারতের রমেশ পাওয়ার ২টি, অজিত আগারকার ও লাসিথ মালিঙ্গা ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

‘সেইন্ট মরিতজ আইস ক্রিকেট’ টুর্নামেন্টে মূলত তারার হাটই বসেছিল। শহীদ আফ্রিদি, বীরেন্দ্র শেহবাগ, শোয়েব আখতার, আবদুল রাজ্জাক, মাহেলা জয়াবর্ধনে, জ্যাক ক্যালিস, জহির খান, মাইকেল হাসিসহ আরো অনেক তারকা ক্রিকেটাররা উপস্থিত ছিলেন।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech