স্ট্রাইক বোলার খ্যাতি পেলেন ফিজ - খেলাধূলা - Premier News Syndicate Limited (PNS)

স্ট্রাইক বোলার খ্যাতি পেলেন ফিজ

  

পিএনএস ডেস্ক : আইপিএলের ১১ তম আসরে তিন ম্যাচ খেলে তিনটিতেই হেরেছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। পয়েন্ট টেবিলে নেমে গেছে সবার নিচে। তবে মুম্বাইয়ের হয়ে খেলা বাংলাদেশের বামহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান নিজেকে প্রমাণ করে চলেছেন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে লিখেছে, মুস্তাফিজ দলের স্ট্রাইক বোলার খ্যাতি অর্জন করেছেন।

মুস্তাফিজ এবারের আইপিএলে মুম্বাইয়ের হয়ে তিন ম্যাচেই মাঠে নেমেছেন। তিন ম্যাচে বাংলাদেশের কাটার মাস্টার হাত ঘুরিয়েছেন ১১.৫ ওভার। উইকেট নিয়েছেন ৫ টি। রান দিয়েছেন ৮৮। এছাড়া তার করা ৭১ বলের ২৯ টি হয়েছে ডট বল। প্রথম ম্যাচে খরুচে বল করার পরও তিন ম্যাচ শেষে ওভার প্রতি রান রেট ৭.৪৩ করে। টি২০'র হিসেবে যা খারাপ না।

আর তাই তো মুস্তাফিজকে নিয়ে আলাদা করে ভিডিও বার্তা ছেড়েছে দলটি। তাতে ফিজ বলেন, 'এবারই মুম্বাইয়ের হয়ে আমি প্রথম আইপিএল খেলছি। এটা নতুন ড্রেসিং রুম এবং এখানে অনেক সিনিয়র খেলোয়াড় আছেন। আমাদের দলের সমন্বয় বেশ ভালো এবং কোচরা অনেক সাহায্যে করছেন। নতুন কোচের সঙ্গে কাজ করলে সবসময় আত্মবিশ্বাস বাড়ে।'

মুস্তাফিজ সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই খেলছেন। মুম্বাইয়ের ম্যাচ জেতাতে না পারলেও ফিজের বোলিং নিয়ে বিশেষ অসন্তোষ নেই মুম্বাই দল এবং সমর্থকদের মধ্যে। প্রথম ম্যাচে যেমন শেষ তিন ওভারে চেন্নাইয়ের দরকার ছিল ৪৭ রান। কিন্তু শেষ ওভারে ফিজের জন্য থাকল মাত্র ৭ রান।

আবার দ্বিতীয় ম্যাচে ১৬ তম ওভারে মাত্র ৩ রান এবং ১৯ তম ওভারে ১ রান দিয়ে নিলেন ২ উইকেট। শেষ ওভারে মুম্বাইয়ের জেতার জন্য দরকার ছিল ১ উইকেট। আর হায়দরাবাদের দরকার ছিল ১১ রান। বেন কাটিং সেই রান আটকাতেও পারলেন না।

একইভাবে তৃতীয় ম্যাচে দিল্লিকে ১৯৫ রানের লক্ষ দিয়েও ফিজের জন্য শেষ ওভারে থাকল মাত্র ১১ রান। যেখানে মু্স্তাফিজ শেষ ওভারসহ ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ২৫ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। এর থেকে বেশি ফিজের কী বা করার থাকতে পারে।

তবে ডেট ওভারে মুস্তাফিজ এবং বুমরাহ বেশ জমিয়ে তুলেছেন। ফিজের কথাতেই তা পরিষ্কার। তিনি বলেন, 'নতুন দলে আমি এখনো শেখার মধ্যে আছি। বুমরাহ খুব ভালো বল করছেন। দু'জন একসঙ্গে বল করতে পেরে ভালো লাগছে।' সেই ভালো লাগা ম্যাচ জিতলে আরো বেশি হতো। তিন ম্যাচেই যে জেতার দারুণ সুযোগ ছিল মুস্তাফিজদের মুম্বাইয়ের সামনে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech