তীরে এসে তরী ডুবল সাকিবের হায়দরাবাদের!

  

পিএনএস ডেস্ক : লক্ষ্য কিছুটা বড়ই ছিল। জয়ের জন্য সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে করতে হতো ১৮৩ রান। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) আজ রোববার দিনের প্রথম ম্যাচে এই রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপাকে পড়ে সাকিব আল হাসানের হায়দরাবাদ। দলের ঝুলিতে কোনো রান যোগ না হওয়ার আগেই প্রথম উইকেট হারিয়ে বসে তারা। শুধু তাই নয়, দলীয় ২২ রানে তিন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের উইকেট হারিয়ে বড় বিপর্যয়ের কবলে পড়েছিল তারা। পরে তা কাটিয়ে উঠে জয়ের কিনারায় গেলেও মাত্র ৪ রানে হেরে যায় সাকিবের দল।

অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন চতুর্থ উইকেট জুটিতে বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে সঙ্গে দলের এই বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন। দুজনে মিলে ৪৯ রান যোগ করে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেন। কিন্তু দলীয় ৭১ রানের মাথায় সাকিব ১৯ বলে ২৪ রান করে ফিরে গেলে আবার হতাশা নেমে আসে হায়দরাবাদ শিরিবে।

তখন কিউই ওপেনার উইলিয়ামসন তাণ্ডব শুরু করেন উইসুফ পাঠানকে সঙ্গে নিয়ে। প্রথমে হায়দরাবাদ অধিনায়ক নিজে ঝড় তোলেন, পরে তাঁর সঙ্গে পাঠানও জ্বলে ওঠেন। দুজনে মিলে চেন্নাই বোলারদের নিয়ে একরকম ছেলেখেলায় মেতে ওঠেন।

দলকে একেবারে জয়ের কিনারায় নিয়ে গিয়েও ছিলেন তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা পারেননি। উইলিয়ামসন ৫১ বলে ৮৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ফিরে যান। পাঁচ চার ও পাঁচ ছক্কায় এই ইনিংসটি সাজান তিনি। আর পাঠান ২৭ বলে ৪৫ রান করে সাজঘরে ফিরে যান। শেষ দিকে আফগানিস্তানের রশিদ খান ৪ বলে ১৭ রান করে কিছুটা আশা জাগিয়েও পারেননি। ১৭৮ রানে থেমে যায় তাদের ইনিংস।

এর আগে চেন্নাইয়ের বড় সংগ্রহে রাইডু ৩৭ বলে ৭৯, রায়না অপরাজিত ৫৪ রান করে সবচেয়ে বড় অবদান রাখেন। অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ১২ বলে ২৫ রান স্কোরকার্ডে জমা করেন।

বল হাতে খুব একটা সাফল্য পাননি বাংলাদেশি স্পিনার সাকিব। চার ওভার বল করে ৩২ রান দিয়েছেন ঠিক, কিন্তু কোনো উইকেট পাননি।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech