মাঠে ঢুকে পড়া সেই দর্শক এখন জেলে

  

পিএনএস ডেস্ক : রাশিয়া বিশ্বকাপের ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়ার মধ্যকার ফাইনালের উত্তেজনাকর মুহূর্তে হঠাৎ মাঠে ঢুকে পড়েন এক সমর্থক।

গত ১৫ জুলাই মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ ফাইনাল চলাকালীন পুলিশের পোশাকে মাঠে ঢুকে পড়েন পুসি রায়টস গ্রুপের ৪ সদস্য। বাক স্বাধীনতার দাবিতে প্রতিবাদ জানাতে তারা মাঠে ঢোকেন বলে দাবি করেছে এই সংগঠনটি। পুলিস অবশ্য গত রোববারই ৪ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে।

মাঠে ঢুকে পড়ায় রাশিয়ার মহিলা সংগঠনের এক সদস্যকে ১৫ দিনের সাজা দিয়ে জেলে পাঠিয়েছে মস্কোর আদালত।

সোমবার মস্কোর আদালত অভিযুক্তদের দোষী ঘোষণা করে। খেলা চলাকালীন সাধারণ দর্শকদের স্বভাববিরুদ্ধ কাজ করেছে বলে এই সংগঠনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল আদালতে। স্টেডিয়ামে বসে এই গ্রুপের সদস্যদের খেলা দেখার উপর ৩ বছরের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আদালত।

এর আগে ২০১২ সালে মস্কোর সবচেয়ে বড় গির্জায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করে গ্রেপ্তার হন এই সংগঠনের সদস্যরা।তাদের মধ্যে ৩ জনের জেলও হয়েছিল।

বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলার প্রথমার্ধের বিরতির পর ফের খেলা শুরু হলে ফ্রান্সের এমবাপ্পে যখন গোলের জন্য মরিয়া হয়ে আক্রমণে যান, ঠিক তখন ক্রোয়েশিয়ার রক্ষণভাগের খেলোয়াড়রা দেজান লভরেন ডিবক্সের মধ্যে হাত দিয়ে এমবাপ্পেকে টেনে ধরেছিলেন। যে কারণে গোলের লক্ষ্যে ছুটা এমবাপ্পে মাঠে পড়ে যান।

আর সেই মুহূর্তে নিরাপত্তা চাদর ভেঙে ঢুকে পড়েন দুইজন সমর্থক। মাঠে ঢুকেই দেজান লভরেনের হাত ধরে টানা হেচরা শুরু করেন। আর মহিলা দর্শকটি মাঠে ঢুকে ফ্রান্সের তারকা ফুটবলার এম বাপ্পের সঙ্গে হাত মেলান।

ভক্তদের এমন আচরণে চমকে যান ফাইনাল ম্যাচ দেখতে লুঝনিকিতে আগত দর্শকরা। যে কারণে কিছু সময় খেলা বন্ধ থাকে। এরপর নিরাপত্তাকর্মীরা এই দুইজন অনুপ্রবেশকারীকে মাঠ থেকে বের করে দেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট এমনকি ফুটবলেও অতীতে একাধিবার এমন ঘটনা ঘটেছে।তবে বিশ্বকাপের ফাইনালে বোধ হয় এই প্রথম।

প্রসঙ্গত, রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে ক্রোয়েশিয়াকে ৪-২ গোলে হারিয়ে ফের চ্যাম্পিয়ন হয় ফ্রান্স। অবশ্য হেরে গেলেও প্রশংসা সাধুবাদ পাবে ক্রোয়েশিয়া। গোটা টুর্নামেন্ট জুড়েই নান্দনিক ফুটবলের পসরা সাজিয়েছিলেন ক্রোয়াটরা।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech