বাংলাদেশ ম্যাচেও ‘নিরাপদ সড়ক চাই’

  

পিএনএস ডেস্ক : আজ জিতল বাংলাদেশ, এবং বাংলাদেশে চলমান নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনও! বাংলাদেশ ক্রিকেট দল জিতেছে ১২ রানে। আর ফ্লোরিডার সেন্ট্রাল রিজওনাল পার্ক স্টেডিয়ামে যাঁরা চলমান আন্দোলনের সমর্থনে পোস্টার-প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হলেন, স্লোগান দিলেন, তাঁদের জয়টা অঙ্কের নিরেট সংখ্যায় প্রকাশ তো সম্ভব না। তাঁদের এই শ্রম বৃথা যায়নি। ক্রিকেটের বিশ্ব মিডিয়ার চোখে পড়েছে। ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় ওয়েব পোর্টাল ইএসপিএনক্রিকইনফো যেমন প্রকাশ করেছে একটি ছবিও।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ক্রিকেট দল যুক্তরাষ্ট্রে খেলতে এল। তাদের সঙ্গে এল যেন একটা বাংলাদেশও। বাংলাদেশ দল যখন খেলে, তখন তো আর শুধু একটা দল খেলে না; দেশই খেলে। ভাষ্যকারেরা বারবার বলেন বাংলাদেশ অত রান করল। ম্যাচের সূচিতে লেখা হয় বাংলাদেশ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচের টিকিটেও তাই। ক্রিকেট দল কথাটা অনেক সময়ই ঊহ্য থাকে। তাই বাংলাদেশ দল নয়, বাংলাদেশই এল যেন।

আর ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল থেকে কয়েক হাজার মাইল দূরে থাকা মানুষগুলো, দেশের জন্য জন্য যাঁদের মন আঁকুপাঁকু করে সব সময়; তাঁরা এই সুযোগ হারালেন না। ফ্লোরিডায় এমনিতেই বাঙালিদের সংখ্যা চোখে পড়ার মতো। বাংলাদেশ দলের সৌজন্যে বাঙালিদের মিলন মেলাও হয়ে গেল। শুধু তো ফ্লোরিডা নয়, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য থেকেও প্রবাসীদের ঢল নেমেছিল। আসা এমন অজস্র বাঙালি মিলিয়ে রীতিমতো কলকাকলি। কান পাততে হচ্ছে না, এমনিতেই বাংলা কথার গুঞ্জরণ ভেসে আসছে। এমন দৃশ্য ফ্লোরিডার মানুষ অন্তত দেখেনি আগে।

পনেরো-বিশ হাজার ধারণক্ষমতার স্টেডিয়াম অনেকটাই পূর্ণ। হ্যাঁ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলেরও সমর্থক ছিলেন ঢের। পার্শ্ববর্তী ক্যারিবীয় দেশগুলো থেকে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি দেওয়া মানুষের সংখ্যাও তো কম নয়। তবে গলা ফাটানোতে তাঁরা অনেকবারই হেরে গেলেন বাংলাদেশের সমর্থকদের কাছে। শুধু মাঠে নয়, গ্যালারিতেও বিজয়ী দলটার নাম কিন্তু বাংলাদেশ!

সূর্যস্নাত ফ্লোরিডাতে এক টুকরো বাংলাদেশ আলো ছড়াল আজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বিপরীতে এই জয় যেন শতগুণ বাড়িয়ে দিল সেই আলোর রশ্মি। সেই আলোকের ঝরনাধারা স্নাত হওয়ার সুযোগ ছাড়তে চাননি অনেকেই। তাঁদেরই একজন আকতার হাসান। ১৮ বছরের প্রবাস জীবনে এই প্রথম বাংলাদেশের খেলা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই আবেগেই বিহ্বল ছিলেন তিনি। বললেন, ‘এটা অনেক বড় বিষয়!’

উত্তেজনার তুমুলে থেকেও তবু তাঁদের মাঝে ছিল বেদনারও কিছুটা আভা। দেশে মাত্রই কদিন আগে দুই শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে। এরপর শিক্ষার্থীদের তুমুল আন্দোলন। আন্দোলন ঘিরে অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটনা। অনেকের হাতে ধরা প্ল্যাকার্ডে ছায়া ফেলেছে তা। তাই তো বাংলাদেশ ম্যাচেও নিরাপদ সড়ক চাই দেখতে পাওয়া গেছে গভীর এক চাওয়ায়। দেখা গেছে উই ওয়ান্ট জাস্টিস-এর সুতীব্র আকাঙ্ক্ষা। ক্রিকেটারদের শক্তি জোগানোর জন্য ছিল, যদি তুমি ভয় পাও তবে তুমি শেষ, যদি তুমি রুখে দাঁড়াও তবে তুমি বাংলাদেশ, এমন প্ল্যাকার্ড!

দর্শক হিসেবে ছিলেন ফ্লোরিডার ইউসিএফ কলেজ অব মেডিসিনের সহকারী ডিন ড. সেজান মাহমুদ। তিনি বললেন, ‘বাংলাদেশের খেলাতে বিজয় যেমন আমাদের অনেক দূর থেকেও আনন্দে ভাসায়; তেমনি কোনো দুর্ঘটনার খবর আমাদের বেদনার্ত করে। নিরাপদ সড়ক এবং পরিবহন ব্যবস্থা মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার। দেশের ভবিষ্যতের জন্য এই নিরাপত্তা দিতে হবে। খুদে শিশুকিশোরেরা দেখিয়েছে আমরা বড়রা কতটা ব্যর্থ হয়েছি। সকলে মিলে নিরাপদ সড়কের দাবি বাস্তাবায়ন করুন।’

বাংলাদেশের বিজয়ের বিজনে ভাসছে আজ সমগ্র ফ্লোরিডা। সবার চাওয়া, আগামীকালও যেন ফ্লোরিডা বাংলাদেশ দলকে খালি হাতে না ফেরায়। যেন জিতে যায় বাংলাদেশ। প্রবাসীদের চাওয়া, শুধু ক্রিকেট নয়, বাংলাদেশ যেন জিতে যায় সব ক্ষেত্রেই!

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech