জেদ্দা পৌঁছার পর ওমরাহ সম্পন্ন করলেন সাকিব

  


পিএনএস ডেস্ক : দু’দিন আগেই পবিত্র হজ পালন করার জন্য সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়েন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। পবিত্র নগরী মক্কায় পৌঁছেই ওমরাহ সম্পন্ন করেছেন।

হজ করতে যাওয়ার পর স্বাভাবিকভাবে শুরুতেই হাজীরা ওমরাহ সম্পন্ন করে ফেলেন। সাকিব আল হাসানও ব্যতিক্রম থাকলেন না। পবিত্র কা’বা শরীফ জিয়ারত শেষে সাফা-মারওয়া পাহাড়দ্বয়ের মধ্যে সায়ী করার পর মাথা মুন্ডনের মাধ্যমে ওমরাহর কার্যক্রম সম্পন্ন করেন। ওমরাহ এবং হজ দুটি এক সঙ্গে সম্পন্ন করাকে বলা হয় হজে তামাত্তু। অধিকাংশ হাজীই হজে তামাত্তু পালন করে থাকেন।

গত রোববার বাংলাদেশ সময় রাত এগারোটায় সৌদি এয়ারলাইনসের বিমানে চেপে হজব্রত পালনের উদ্দেশ্যে রওনা হন বাংলাদেশ দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। জেদ্দা পৌঁছার পর আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে সাকিব চলে যান মক্কায়। সেখানে পৌঁছার পর প্রথম সুযোগেই ওমরাহ’র কাজ সম্পন্ন করে ফেলেন তিনি।

ওমরাহ করার পর যে মাথা মুন্ডন করতে হয়, তার একটা ছবি সাকিব নিজের ফেসবুক পেজে প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, প্রথমে শোনা গিয়েছিল, স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশির ও কন্যা আলায়না হাসান অব্রিকে সাথে নিয়ে হজ করতে যাবেন সাকিব। তবে তার ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, স্ত্রী ও কন্যা এখনো যুক্তরাষ্ট্রেই আছেন। একাই হজ পালন করছেন সাকিব।

হজে যাওয়ার আগে নিজের ফেসবুক পেজে সাকিব লেখেন, ‘এই পবিত্র জিলহজ্ব মাসে, একজন অনুগত মুসলিম হিসেবে পরম করুণাময় আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় আল্লাহর ঘরে পবিত্র হজ পালনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করতে পেরে আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। আপনাদের সবার নিকট দোয়া প্রার্থনা করছি যেন সুস্থ ও সুন্দরভাবে পবিত্র হজ পালন করতে পারি। আমার বা আমার পরিবারের কোনো ভুলের জন্য আপনাদের নিকট আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আমিও আপনাদের সবার মঙ্গল এবং দেশ ও জাতির শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য আল্লাহর নিকট দোয়া প্রার্থনা করব। সবার জন্য আমার তরফ থেকে ভালোবাসা রইল - সাকিব।’

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech