শোয়েব আখতারের সাথে একি করলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান

  

পিএনএস ডেস্ক : পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী সাবেক ক্রিকেট মহাতারকা ইমরান খান সরকারী ব্যয় কমানোর ঘোষণা দিয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছেন। যদিও তার হেলেক্প্টারে করে অফিসে যাওয়া নিয়ে হাস্যরস চলছে। কিন্তু পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়কের কৃচ্ছতাসাধন নীতি থেকে বাদ যাচ্ছে না দেশটির ক্রিকেট বোর্ডও। ছাঁটাই করা হচ্ছে কর্মী। আর উঁচু পদধারীদের পদত্যাগের সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে!

ইমরান ক্ষমতায় আসার পরপরই পিসিবির চেয়ারম্যানের পদ থেকে ইস্তফা দেন প্রখ্যাত সাংবাদিক নাজাম শেঠি। নতুন প্রধান হিসেবে পিসিবির চেয়ারে বসেন এহসান মানি। দায়িত্ব নিয়েই তিনি ছেঁটে ফেলেন চার পরামর্শকের প্যানেল। যাদের মধ্যে আছেন সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারও। গত বৃহস্পতিবার শোয়েব টুইট করে পিসিবি চেয়ারম্যানের পরামর্শক পদ থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। শোয়েবের এই টুইটের পর দেশটির ক্রিকেটাঙ্গণে চলছে অসন্তোষ।

পিসিবিতে বেতনভুক্ত কর্মীর সংখ্যা ৯ শতাধিক। জানা গেছে, আরও অনেক রদবদল হতে যাচ্ছে শীর্ষ পদগুলোতে। অনেককে ছাঁটাই করার আগে পদত্যাগের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তাই দুয়ে দুয়ে চার মিলিয়ে পাকিস্তানি গণমাধ্যম বলছে, স্বেচ্ছায় সরে না গেলে ছাঁটাইয়ের শিকার হতে হবে জেনেই শোয়েব মানে মানে কেটে পড়েছেন। চারজনের মধ্যে দুজন অবশ্য বিনা বেতনে কাজ করতেন। তবে শোয়েব ও সালাউদ্দিন সাল্লু মোটা বেতন পেতেন।

কিন্তু শোয়েবের এই হাল হবে তা কে জানত? ইমরান খান ক্ষমতায় আসার পর 'রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস' খ্যাত সাবেক এই গতিদানব টুইটারে লিখেছিলেন, 'ইমরান ভাই এবার পাকিস্তানের দিন বদলে দেবেন।' এতটা সমর্থন দিয়েও চাকরি হারাতে হবে, তা কখনো ভেবেছিলেন শোয়েব?

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech