ধর্ষণ নয়, সম্মতিতেই শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছেন রোনালদো!

  

পিএনএস ডেস্ক : হ্যাঁ, তিনি অভিযুক্তের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছেন তবে সেটা সম্মতিতেই। ধর্ষণের অভিযোগে এই সাফাই-ই দিল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর আইনজীবী পিটার এস ক্রিস্টিয়েনসেন। তার দাবি, রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের যে অভিযোগ করা হয়েছে, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং সাজানো।

প্রসঙ্গত সপ্তাহ দু’য়েক আগেই রোনালদোর সঙ্গে তার সম্পর্কের কথা জনসমক্ষে নিয়ে এসেছেন মার্কিন তরুণী ক্যাথরিন। ফুটবল লিকস নামের একটি ওয়েবসাইট এবং ‘দেয়া স্পিগে’ নামের একটি জার্মান ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয় ক্যাথরিনের সাক্ষাত্কার।

৯ হাজার শব্দের ওই সাক্ষাত্কারের পরই জুভেন্তাস তারকা রোনালদো ও মার্কিন তরুণী ক্যাথরিনের সম্পর্ক নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। ৩৪ বছরের তরুণী অভিযোগ করেন, ৯ বছর আগে ২০০৯ সালে লাস ভেগাসের একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পর্তুগিজ ফুটবল তারকা। তার দাবি এটি একটি ‘ফেক নিউজ’।

‘দ্যা সান’ প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ২০০৯ সালে রোনালদো তার শ্যালক ও খুড়তোতো ভাইকে নিয়ে লাস ভেগাসে এসেছিলেন। সেখানেই রেইন নামের একটি নাইটক্লাবে ক্যাথরিনের সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল রোনালদোর।

পর্তুগিজ তারকার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ক্যাথরিনের অনিচ্ছা থাকা সত্ত্বেও না কি তার সঙ্গে ‘ইন্টার কোর্স’ করেন জুভেন্তাস তারকা। অভিযোগ, মুখ বন্ধ রাখার জন্য ক্যাথরিনকে না কি কোটি কোটি টাকা দিতেও রাজি ছিলেন সি আর সেভেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech