বিশ্বকাপে ফিক্সিং এড়াতে আইসিসির যে কৌশল

  

পিএনএস ডেস্ক : আর মাত্র ১৫ দিন পর ইংল্যান্ডে পর্দা উঠবে ক্রিকেট বিশ্বকাপের। এবারের আসরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ১০ দল। কম দল হলেও আসরের পরিধি বড়। ফলে ম্যাচ ফিক্সিং থেকে শুরু করে নানা ধরনের দুর্নীতি হওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়া যায় না ক্রিকেটের সেরা এই আয়োজনে।

বিষয়টি সামনে রেখে বসে নেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ সবার সামনে ফিক্সিং রোধ করে দৃষ্টান্ত স্থাপনে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ সংস্থাটি। সেজন্য ১০ দলের প্রতিটির সঙ্গে একজন করে দুর্নীতি দমন কর্মকর্তা রাখার ব্যবস্থা করছে আইসিসি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রস্তুতি ম্যাচ থেকেই প্রতিটি দলের সঙ্গে একজন করে দুর্নীতি দমন কর্মকর্তা থাকবেন। আসর শেষে দেশের বিমানে ওঠার আগ পর্যন্ত দলের সঙ্গে থাকবেন তিনি।

অতীতে প্রতিটি ভেন্যুতে একজন করে কর্মকর্তা নিয়োগ রাখত আইসিসির দুর্নীতি দমন ইউনিট (আকসু)। ফলে মাঠের বাইরে তাদের দেখা পেতেন না ক্রিকেটারেরা। তবে সেই কর্মকর্তারাই এখন থেকে প্রতিটি দলের সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত থাকবেন। এমনকি খেলোয়াড়েরা শপিং মলে গেলেও তাদের সঙ্গে থাকবেন তারা।

কেবল দুর্নীতি ঠেকাতেই এ কর্মকর্তাদের নিয়োগ দিচ্ছে না আকসু। ক্রিকেটারদের সঙ্গে যেন সার্বক্ষণিক যোগাযোগ থাকে সেই উদ্দেশ্যও আছে। কোনো অসংগতি দেখলেই ক্রিকেটারেরা যেন তাদের শরণাপন্ন হতে পারেন কিংবা অবহিত করতে পারেন।

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech