চেলসি'র কষ্টার্জিত জয়

  


পিএনএস ডেস্ক: নিউক্যাসেল ইউনাইটেডকে একমাত্র গোলে হারিয়ে প্রিমিয়র লিগে প্রথম চারে ঢুকে পড়ল চেলসি। সবধরনের প্রতিযোগীতা মিলিয়ে টানা পঞ্চম ম্যাচে জয় তুলে নিল ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের চেলসি। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে নিউক্যাসেলের বিরুদ্ধে প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে স্প্যানিশ লেফট-ব্যাক মার্কোস অ্যালোন্সোর চোখধাঁধানো গোল পুরো তিন পয়েন্ট এনে দিল ব্লুজ’দের।

প্রথমার্ধে ইংলিশ স্ট্রাইকার কালাম হাডসন ওদোইয়ের বাঁ-প্রান্তিক দৌড় নিউক্যাসেল রক্ষণকে কয়েকবার পরীক্ষার মধ্যে ফেললেও বিপদ কিছু ঘটেনি। ১৫ মিনিটে ওদোইয়ের সেন্টার থেকেই দিনের প্রথম ইতিবাচক সুযোগ তৈরি করে চেলসি। ইংলিশ স্ট্রাইকারের ঠিকানা লেখা সেন্টার থেকে ঠিকঠাক মাথায় বলে সংযোগ করতে ব্যর্থ হন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার উইলিয়ান। নইলে শুরুতেই এগিয়ে যেতে পারত ল্যাম্পার্ডের দল। এর ঠিক তিন মিনিট বাদে বক্সের মধ্যে ওদোইয়ের পাস থেকেই হাফ টার্নে গোল লক্ষ্য করে শট নেন ম্যাসন মাউন্ট। ইংলিশ মিডিওর গোলার মত শট এযাত্রায় রক্ষা পায় বিপক্ষ গোলরক্ষক ডুব্রাভকার দস্তানায়।

বাকি সময়টা নিউক্যাসেল রক্ষণে পায়ের ভিড় এড়িয়ে সেভাবে আক্রমণে হুল ফোটাতে পারেনি চেলসি। উল্টে বিরতির আগে চোট পাওয়া রস বার্কলেকে তুলে নিতে বাধ্য হন ল্যাম্পার্ড। দ্বিতীয়ার্ধে ক্রিশ্চিয়ান পুলিসিচ মাঠে নামার পর খেলায় গতি ফেরে চেলসির। যদিও কালাম ওদোইয়ের পাস থেকে গোলের সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন এই মার্কিন ফুটবলার। এরই মাঝে উইলিয়ানের কর্নার থেকে টনি আব্রাহামের হেডও ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়।

অবশেষে উৎকণ্ঠা কাটিয়ে ৭৩ মিনিটে চেলসির ত্রাতা হয়ে ওঠেন মার্কোস অ্যালোন্সো। বক্সের মধ্যে ওদোইয়ের থেকে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে ডুব্রাভকাকে পরাস্ত করেন স্প্যানিশ লেফট ব্যাক। একমাত্র গোলে এগিয়ে থেকে বাকি সময়টা নির্বিঘ্নে কাটিয়ে ৩ পয়েন্ট নিশ্চিত করে চেলসি। ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লিগ টেবিলে ৩ নম্বরে ব্লুজ’রা।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech