৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে ৭ম শ্রেণির ছাত্রের অপহরণ!

  

পিএনএস ডেস্ক : কক্সবাজারের চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণের আটদিন অতিবাহিত হলেও অপহৃত ওই ছাত্রী উদ্ধার হয়নি। একই স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্র প্রভাস জলদাসের নেতৃত্বে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অপহৃত ছাত্রীর মা-বাবা দাবি করেছেন। এঘটনায় পাঁচজেনর নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাত আরো ৩-৪ জনকে আসামি করে চকরিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ১১ মার্চ রাতে চকরিয়া থানায় দায়ের করা মামলায় দাবি করেছেন, তাদের বাড়ি কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও ইসলামাবাদ জলদাস পাড়ায়। তারা স্ব-পরিবারে চকরিয়া পৌরসভার ভরামুহুরীরর হরি মাস্টারের ভাড়া বাসায় থাকতো। এই বাসা থেকে তাদের মেয়ে চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয়ে যাতায়ত করতো।

পথে একই স্কুলের ৭ম শ্রেণির ছাত্র প্রভাস ও দুলাল দাস নামের দুই ব্যক্তি বিভিন্ন সময়ে তার মেয়েকে উত্ত্যক্ত করতো। ওই ঘটনায় দুইজনের বিরুদ্ধে তাদের পরিবার সদস্যদের অভিযোগ করা হয়। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৫ মার্চ বিকাল আড়াইটার দিকে স্কুল থেকে ফেরার পথে প্রভাসের নেতৃত্বে ৮-৯ জন যুবক জোরপূর্বক তার মেয়েকে একটি গাড়িতে তুলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে ব্যাপক খোঁজ করেও না পেয়ে থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই অপু বড়ুয়া জানান, ছাত্রীকে উদ্ধার করতে একাধিক সোর্স নিয়োগ করা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে সন্ধানও চলছে। তবে ওই ৮ম শ্রেণির ছাত্রী ও প্রধান অভিযুক্ত ৭ম শ্রেণির ছাত্রের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলেও এলাকার লোকজন জানায়।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী সোমবার বলেন, স্থানীয়ভাবে জানতে পেরেছি অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছাত্র-ছাত্রী প্রেমকে প্রণয়ে রুপ দিতে পালিয়েছে। তবে অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় ছাত্রীর মা বাদী হয়ে দেয়া এজাহারটি মামলা হিসেবে এন্ট্রি করা হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech