দেশব্যাপী ১০০ টি স্কুলে শুরু হতে যাচ্ছে ‘সবুজ ইশকুল গড়ি’ অভিযান! - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

দেশব্যাপী ১০০ টি স্কুলে শুরু হতে যাচ্ছে ‘সবুজ ইশকুল গড়ি’ অভিযান!

  

পিএনএস : পরিবর্তন চাই নামক সামাজিক সংগঠনের আয়োজনে সারাদেশের ১০০টি স্কুলকে সুন্দর এবং টেকসইভাবে পরিচ্ছন্ন করতে ১০০ সবুজ ইশকুল গড়ি’ অভিযান শুরু হতে যাচ্ছে। আজ “রংপুর পুলিশ কমিউনিটি হল” প্রাঙ্গনে এ অভিযানের উদ্বোধন করেন রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তাফা। তিনি অন্যান্য সামাজিক সংগঠন এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানকে এ ধরণের উদ্যোগে অংশ নিতে আহ্বান জানান।

রংপুরে পরিচ্ছন্নতা অভিযান জোরদার করার বিবিধ উদ্যোগের কথা জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তারাই পারে দেশের সকল অসঙ্গতি দুর করে একটি মডেল ও সুন্দর রাষ্ট্র উপহার দিতে। এছাড়াও তিনি রংপুর সিটিকে একটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। পরিবর্তন চাই এর চেয়ারম্যান ফিদা হক জানান, ময়লার ধরণ অনুযায়ী ভিন্ন ভিন্ন ডাস্টবিন ব্যবহার স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের শেখানো হচ্ছে এ অভিযানের প্রধান লক্ষ্য। ১০০ সবুজ ইশকুল গড়ি অভিযানের অংশ হিসেবে স্কুল গুলোতে তিন রঙ্গের ডাস্টবিন পর্যাপ্ত সংখ্যক দেয়া হবে।

পাশাপাশি স্কুল আঙ্গিনায় একটি কম্পোষ্ট প্যান্ট স্থাপন করা হবে। যেখানে স্কুলের শিক্ষার্থীরা পচনশীল ময়লা দিয়ে কম্পোষ্ট সার তৈরী করবেন। সে সার দিয়ে স্কুল আঙ্গিনায় ফুলের বাগান করা হবে। এছাড়া স্কুলের মাঠে ঘাস লাগানো, পরিচর্চা এবং স্কুলের দেয়াল রঙ করা হবে। বছরব্যাপী অভিযানের শেষে সফল স্কুল গুলোকে সবুজ ইশকুল সার্টিফিকেট দেয়া হবে। শিশু নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় ও হলি চাইল্ড পাবলিক স্কুল সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় মোট ৫টি স্কুলে ‘১০০ সবুজ ইশকুল গড়ি’র আয়োজনে পৃষ্ঠপোষকতা করছেন মিউচুয়েল ট্রাস্ট ব্যাংক, বাংলাদেশ। ১০০ সবুজ ইশকুল গড়ি অভিযানের অংশ হিসেবে শিশু নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয় ও হলি চাইল্ড পাবলিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে ‘আমার স্বপ্নে আমার সবুজ ইশকুল’ নামক একটি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়।

১ম থেকে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রছাত্রীদের 'ক গ্রুপ এবং ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেনী পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে 'খ গ্রুপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগীরা অংশ নেন। দুর্দান্ত কিছু স্বপ্ন তারা ছবিগুলোতে ফুটিয়ে তুলেছেন। প্রতিযোগিতার বিচারক হিসেবে কাজ করেছেন পরিবর্তন চাই এর চেয়ারম্যান ফিদা হক, অবসরপ্রাপ্ত কারমাইকেল কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান শাহ আলম ,শিল্পী আহসান হাবীব প্রমুখ। ক এবং খ গ্রুপে প্রথম স্থান অধিকার করেন যথাক্রমে হলি চাইল্ড পাবলিক স্কুলের শিক্ষার্থী একান্ত এবং শিশু নিকেতন উচ্চ বিদ্যালয়ের সাফিন। অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে ক্রেস্ট এবং গাছ তুলে দেয়া হয় পুরষ্কার হিসেবে। ২০১৪ সাল থেকে পরিবর্তন চাই দেশের নাগরিক পরিচ্ছন্নতা অবস্থার উন্নয়নে সরকারী ও বেসরকারী বিভিন্ন সংস্থার সঙ্গে একাত্ম হয়ে বিবিধ কর্মসূচীপালন করে আসছে। সংগঠনটির উদ্যোগে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো দেশটাকে পরিষ্কার করি দিবস পালন করা হয় ২০১৪ সালে।

এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালের চতুর্থ বারের আয়োজনে সারাদেশের ১০০টি স্থানে এক লক্ষ দশ হাজারের বেশী স্বেচ্ছাসেবক অংশগ্রহন করেন বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন,বীর প্রতীক কর্ণেল নিয়ামুল ফাতেমী, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তুহিন ওয়াদুদ প্রমুখ।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech