হীরামনির ইচ্ছে ছিল বোন সুস্থ হলে একসঙ্গে স্কুলে যাবো

  


পিএনএস, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আজ আমার খেলার সাথি হারিয়ে গেলো। অনেক ইচ্ছে ছিল, বোন (মুক্তামনি) সুস্থ হলে ওকে নিয়ে একসঙ্গে স্কুলে যাবো। কিন্তু তা আর হলো না।’ কথাগুলো বলছিল মুক্তামনির জমজ বোন হীরামনি। রক্তনালীর টিউমারে আক্রান্ত মুক্তামনি বুধবার সকালে মারা যাওয়ার পর হীরামনি এভাবেই আহাজারি করছিল।

বুধবার (২৩ মে) সকাল ৮টার দিকে সদর উপজেলার কামারবাসা গ্রামের নিজ বাড়িতে মারা যায় মুক্তামনি। সম্প্রতি তার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ হয়ে পড়েছিল। ডান হাতটি আরও ফুলে গিয়েছিল। তাকে নিয়ে চিন্তায় ছিল পরিবার। কয়েকদিন থেকেই জ্বরেও ভুগছিল সে। মঙ্গলবার রাত থেকে তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে।

এদিকে মুক্তামনির মৃত্যুতে তার বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। মুক্তামনির মা আসমা খাতুন কোনও কথাই বলছেন না। মেয়ে হারানোর শোকে অঝোরে কাঁদছেন তার বাবা ইব্রাহীম হোসেন। তাকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন স্বজনরা।

শেষবারের মতো মুক্তামনিকে দেখতে শত শত মানুষ তাদের বাসায় ভিড় জমাচ্ছেন। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ফরহাদ জামিন মুক্তামনির বাসায় এসে পরিবারকে সমবেদনা জানান।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জোহরের নামাজের পর জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মুক্তামনিকে দাফন করা হবে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech