ফুলবাড়ীয়ায় গণধোলাইয়ের শিকার সেই দুই অপহরণকারীর পরিচয় মিলেছে

  

পিএনএস, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থেকে স্কুলছাত্রকে অপহরণ করে মাইক্রোবাসে তুলে গুলি করে পালিয়ে যাওয়ার পথে ঘাটাইল উপজেলার সলিং বাজারে স্থানীয় জনতা অপহৃত স্কুলছাত্রকে উদ্ধারের পাশাপাশি ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটি পুড়িয়ে দেয় এবং বিদেশী পিস্তল ৪ রাউন্ড গুলিসহ দুই অপহরণকারীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে আশংকাজনক হওয়ায় সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে।

পরে সেখান থেকে এনে গণধোলাইয়ের শিকার হওয়া দুই অপহরণকারীকে পুলিশ প্রহরায় মচিমহায় ভর্তি করা হয়। এসময় পুলিশ জানায়,অপহরণকারীরা সুস্থ্য হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। দুই অপহরণকারীর চিকিৎসা শেষে পরিচয় নিশ্চিত করে পুলিশ সূত্র জানায়, আটককৃত অপহরণকারীরা হলেন- ধোবাউড়া উপজেলার পূর্ব টাংগাটি গ্রামের চান মিয়ার ছেলে সম্রাট শাহজাহান (৩০) ও ঢাকার দক্ষিণ খান এলাকার আঃ খালেকের ছেলে রফিকুল ইসলাম (৩৫)।

ঘটনার পর স্কুলের ছাত্রের বাবা রফিকুল ইসলাম মাস্টার বাদী হয়ে আটককৃত দুইজনসহ ৪ অপহরণকারীর বিরুদ্ধে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, ফুলবাড়িয়া উপজেলার টেকিপাড়া পূর্ব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খানের ছেলে এবং সরকারি ফুলবাড়িয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র তানজিল ইসলাম খান (১৫) গত বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উপজেলার কুশমাইল টেকিপাড়া গ্রাম থেকে ডিস্কোবার মোটরসাইকেল চালিয়ে স্থানীয় ছলির বাজারে আসার পথে শিবগঞ্জ টু ফুলবাড়ীযা সড়কে আসলে পেছন থেকে একটি মাইক্রোবাস দিয়ে তানজিল ও তার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে অপহরণকারীরা।

এ সময় মাইক্রোবাস থেকে চার অপহরণকারী নেমে স্কুলছাত্র তানজিল ইসলাম খানকে মাইক্রোবাসে তুলে দ্রুত শিবগঞ্জ বাজারের দিকে চলে যায়। আরেক অপহরণকারী মাইক্রোবাস থেকে নেমে তানজিলের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি চালিয়ে মাইক্রোবাসের পেছনে পেছন যেতে থাকে।

অপহরণকারীদের মাইক্রোবাসটি টাঙ্গাইল উপজেলার মধুপুর উপজেলার চৌরাস্তায় পৌঁছালে স্থানীয়দের মাঝে সন্দেহ হলে মাইক্রোবাসটি আটকের চেষ্টাকালে গাড়ি থেকে জনতাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে ছুঁড়তে মাইক্রোবাস নিয়ে চলে যায়। এ সময় জনতার ধাওয়ায় আরেক অপহরণকারী (মোটরসাইকেল চালিয়ে আসা) সন্তোষপুর রাবার বাগানে ডিস্কোবার মোটরসাইকেলটি ফেলে পালিয়ে যায়।

এভাবে মাইক্রোবাসে করে অপহৃতকে নিয়ে টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলার সলিং বাজারে পৌঁছালে অপহৃত স্কুলছাত্র তানজিল চিৎকার শুরু করলে বাজারের লোকজন মাইক্রোবাসটি আটকের চেষ্টাকালে আপহরণকারীরা ৪ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এ সময় মাইক্রোবাসের চাকা ফেটে গেলে স্থানীয় লোকজন তিন অপহরণকারীর মধ্যে দু'জনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে মাইক্রোবাসে আগুন জ্বালিয়ে দেয় এবং আটক দুই অপহরণকারীকে গণধোলাই দিয়ে আশংকাজনক অজ্ঞান অবস্থায় সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। পরে বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশ অপহৃত স্কুলছাত্র তানজিল ইসলাম খান ও দুই অপহরণকারীকে ঘাটাইল থেকে ফুলবাড়ীয়া থানায় নিয়ে আসে। সেইসাথে গণধোলাইয়ের শিকার হওয়া দুই অপহরণকারীকে মচিমহায় ভর্তি করা হয়। এসময় পুলিশ জানায়,অপহরণকারীরা সুস্থ্য হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল




 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech