কুমিল্লায় মা–শিশুসহ ৫ জনকে কুপিয়ে হত্যা, গণপিটুনিতে ঘাতক নিহত

  

পিএনএস ডেস্ক: কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলায় এক ব্যক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে এক শিশু, চার নারীসহ পাঁচজনকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত দুজন। পরে ওই ব্যক্তি গণপিটুনিতে নিহত হন। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার রাধানগর গ্রামের পুকুরিয়াপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন রাধানগর গ্রামের মো. শাহ আলমের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৪০) ছেলে আবু হানিফ (১২), একই গ্রামের নুরুল ইসলামে স্ত্রী নাজমা আক্তার (৩৬), মা মাজেদা বেগম (৫৫) ও ছ্যাচড়া পুকুরিয়া গ্রামের বজলু মিয়ার স্ত্রী (৩৮)। বজলু মিয়ার স্ত্রীর নাম জানা যায়নি।

দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল আনোয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওসির ভাষ্য, মোখলেসুর রহমান নামের ওই ব্যক্তি মাদকাসক্ত ছিলেন। তিনি এলাকায় নানা ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। আজ সকালে তিনি প্রথমে আবু হানিফকে কুপিয়ে হত্যা করেন। হানিফ সে সময় ফসলের মাঠে কাজ করছিল। এ সময় এগিয়ে এলে একে একে তিনি অন্যদের কুপিয়ে জখম করেন। ঘটনাস্থলেই পাঁচজন নিহত হন। এক স্কুলছাত্র ও এক নারী আহত হন। তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে মোখলেসুর রহমান নিহত হন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech