নেত্রকোনায় কৃষক খুন

  



পিএনএস ডেস্ক: মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নেত্রকোনার মদনে ফেরদৌস (৫৫) নামের এক কৃষক খুন হয়েছেন। এ সময় ৩ জন আহত হয়েছেন।

আহতরা হলেন-তরিকুল ইসলাম, রুনা আক্তার ও আব্দুল আওয়াল।তাদের মদন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত ফেরদৌস উপজেলার গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নের পদমশ্রী মনিকা গ্রামের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার গোবিন্দশ্রী ইউনিয়নের পদমশ্রী মনিকা গ্রামের ফেরদৌসের বাড়ির পেছনে গোড়াটে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় নিহতের ভাই সাদেক মিয়া বাদী হয়ে ১৪ জনকে আসামি করে ওই রাতেই মদন থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

অভিযুক্ত আসামি বাচ্চু (৫০)কে রাতেই গ্রেফতার করেছে মদন থানার পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পদমশ্রী মনিকা গ্রামে নিহত ফেরদৌসের বায়না দেয়া জমিতে একই গ্রামের ইউপি সদস্য বকুল মিয়ার ছেলেরা টর্চ লাইটের আলোতে মাছ ধরতে গেলে ফেরদৌসের লোকজন বাধা দেয়। পরে তারা মাছ না ধরে বাড়িতে চলে যায়। ছেলেদের মাছ ধরতে নিষেধ করার সংবাদ শুনে বকুল মেম্বার তার লোকজন নিয়ে ধারালো অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ফেরদৌসসহ তার লোকজনের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে ফেরেদৌসসহ ৪ জন আহত হয়। তাদের মদন হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফেরদৌসকে মৃত ঘোষণা করেন।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য শনিবার নেত্রকোনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। গ্রেফতার বাচ্চু মিয়াকে নেত্রকোনার কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

মদন থানার ওসি মো রমিজুল হক জানান, মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় পদমশ্রী মনিকা গ্রামে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যামামলা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামি বাচ্চুকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech