সখীপুরে বিষ পানে কিশোর-কিশোরীর মৃত্যু

  

পিএনএস ডেস্ক : টাঙ্গাইলের সখীপুরে বিষ পানে এক কিশোর ও এক কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কিশোরটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কিশোরীটির মৃত্যু হয়।

দুই কিশোর-কিশোরী উপজেলার একটি মাদ্রাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। তাদের মৃত্যুর ঘটনায় সখীপুর থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।


সখীপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুকান্ত বাউল বলেন, একই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের একই শ্রেণিতে পড়ার সুবাদে কিশোর-কিশোরীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাস খানিক আগে দুই পরিবারের মধ্যে বিষয়টি জানাজানি হয়।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য আবুল কালাম আজাদ বলেন, দুই পরিবার বিষয়টি মেনে নিলেও বাল্যবিয়ের কারণে প্রশাসনের চাপে ছেলে-মেয়ের ইচ্ছা পূরণ হয়নি। মেয়েটি ঈদের দিন রাতে বাড়ির কাউকে না জানিয়ে ছেলের বাড়িতে চলে আসে। ছেলের পরিবার বিষয়টি মেনে না নেওয়ায় ঈদের পরের দিন মঙ্গলবার সকালে ছেলের বাড়িতে দুজনেই বিষপান করে। বিষপানের ঘটনার পরপরই ছেলের বাড়ির লোকজন তাদের সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে যায়।

সখীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা রাজিয়া সুলতানা বলেন, অবস্থার অবনতি হওয়ায় দুজনকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে ছেলের স্বজনেরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং মেয়ের স্বজনেরা তাকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। মেয়েটি ওই হাসপাতালে নেওয়ার পর গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টায় মারা যায়। এর ২৩ ঘণ্টা পর গতকাল আজ বেলা সাড়ে ১১টায় ছেলেটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, এ ঘটনায় পৃথক দুটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। কী কারণে অল্প বয়সী দুটি প্রাণ ঝরে গেল, তদন্ত করে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech