সেনাবাহিনীতে চাকরি দেওয়ার প্রলোভনে প্রতারণা, বদরগঞ্জে গ্রেপ্তার ৩

  


পিএনএস ডেস্ক: সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকুরি দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে হতদরিদ্র এক বেকার যুবকের পরিবারের কাছ থেকে সাড়ে সাত লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার ঘটনায় প্রতারক চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রংপুর র্যাুব-১৩ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে বদরগঞ্জ থানায় সোপর্দ করে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে রংপুরের বদরগঞ্জ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। র্যা বের হাতে গ্রেপ্তার উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের পলাশবাড়ী সর্দারপাড়া গ্রামের পুলিন চন্দ্র দাস (৬৫) তার ছেলে মিন্টু চন্দ্র দাস (৩০) ও তারাগঞ্জ উপজেলার তেলিপাড়ার খাদেমুল ইসলাম (৩৪)।

এ সময় র্যারবের অভিযানের খবর পেয়ে পালিয়ে যায়, সিন্টু চন্দ্র দাস ও মো. মুরাদ মিয়া অপর দুই প্রতারক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী আব্দুল মোতালেব নামে এক ব্যক্তি বাদী হয়ে রাতে পাঁচজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মনোয়ার ইসলাম (১৯) নামে এক বেকার যুবককে সেনাবাহিনীর সৈনিক পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে কয়েক দফায় সাড়ে সাত লাখ টাকা নেন একটি প্রতারক চক্র। পরে ভুয়া নিয়োগপত্র ও চাকরিতে যোগদানের কাগজপত্র দিয়ে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে কাগজপত্র যাছাই-বাছাই করে দেখা যায়। ওই নিয়োগপত্র ভুয়া। এ ঘটনায় মনোয়ারের বাবা মোতালেব হোসেন র্যা বের কাছে লিখিত অভিযোগ করে। পরে অভিযান চালিয়ে তাদের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বদরগঞ্জ থানার ওসি আরিফ আলী বলেন, র্যা বের অভিযানে প্রতারণা করার অভিযোগে তিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকি দুই আসামী পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন