ভোলায় ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় প্রস্তত ৬৬৮ আশ্রয়কেন্দ্র ও ১৩ হাজার স্বেচ্ছাসেবী

  

পিএনএস ডেস্ক : ভোলায় ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসন। লোকজনদের সতর্ক করতে ও আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নেওয়ার জন্য সবখানে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া প্রস্তুত রয়েছে ৬৬৮টি আশ্রয়কেন্দ্রসহ ১৩ হাজার স্বেচ্ছাসেবক।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে আজ শুক্রবার সকাল থেকে বৃষ্টি গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। ৪ নম্বর সতর্ক সংকেতের সঙ্গে সঙ্গেই জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জরুরি দুর্যোগ প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দুর্যোগ পরিস্থিতি সামাল দিতে সব কর্মকর্তাদের ছুটি বাতিল করে কর্মস্থলে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো. মাসুদ আলম। যারা ছুটিতে আছেন তাদেরও দ্রুত কর্মস্থলে ফিরে আসার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। দুর্যোগ পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে একটিসহ সাত উপজেলায় আটটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে।

এছাড়া রেডক্রিসেন্ট, সিপিপি কর্মীসহ ১৩ হাজার স্বেচ্ছাসেবক নদী ও চরাঞ্চলে সতর্কতামূলক মাইকিংসহ দুর্যোগের আগের ও পরের জরুরি পরিস্থিতি সামাল দিতে কজে নিয়োজিত রয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক মো. মাসুদ আলম ছিদ্দিক।

৬৬৮টি আশ্রয়কেন্দ্রে মানুষ ও ৩৯টি মুজিব কিল্লাতে গবাদি পশু আশ্রয় নিতে পারে তার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে। নদী থেকে জেলেদের ফিরে আসার জন্য নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech