টেকনাফে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দিল মেয়ে

  

পিএনএস, কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজারের টেকনাফে দাখিল পরীক্ষার্থী এক মেয়ে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে কেঁদে কেঁদে পরীক্ষায় অংশ নিলেন।

২২ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় হ্নীলা রঙ্গীখালী দারুল উলুম ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রের এক শিক্ষার্থী মায়ের মৃতদেহ ঘরে রেখে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এর আগে সকালে দাখিল পরীক্ষার্থী মরিয়ম আক্তার খানুর ‘মা’ নিজ বাড়িতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। মরিয়ম হ্নীলা শাহ মজিদিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার ছাত্রী এবং হ্নীলা পূর্ব সিকদার পাড়া মৃত হাজী নুরুল ইসলাম (প্রকাশ) নুরুর মেয়ে।
একদিকে মায়ের মৃতদেহ অপরদিকে নিজের জীবনের ভিত্তি গড়ার জন্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ।

এই দুই চ্যালেঞ্জকে সামনে রেখে দাখিল পরিক্ষার্থী মরিয়ম পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নেয়। সে মায়ের নিথরদেহ ঘরে রেখে কাঁদতে কাঁদতে যখন পরীক্ষা দিতে বের হয় তখন এলাকাবাসী ও আত্মীয়স্বজনের মাঝে চোখে মুখে নেমে আসে চরম হতাশার ছায়।

তথ্য সূত্রে আরো জানাযায়, পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত পরীক্ষার্থী মরিয়ম কেঁদে কেঁদে অস্থির হয়ে পড়ে। এসময় তার পাশে থাকা শিক্ষার্থীরা তাকে শান্তনা দেয়। এদিকে তার এই দৃশ্য দেখে শিক্ষক-শিক্ষার্থী কেন্দ্র সচিব, হল সুপারসহ সকলে খুবেই মর্মাহত হয়ে পড়ে।

আসরের নামাজের পর হ্নীলা শাহ মজিদিয়া মাদ্রাসা মাঠে মরহুমার নামাজে জানাযা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন