ঝিনাইদহে ১২ প্রবাসীসহ ৪৪ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে

  

পিএনএস ডেস্ক : ঝিনাইদহে ২৪ ঘণ্টায় বিদেশ ফেরত ১২ জন প্রবাসীসহ ৪৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এ নিয়ে গত ১০ মার্চ থেকে ২৭ মার্চ পর্যন্ত এই ১৮ দিনে ঝিনাইদহে জেলায় মোট ৯১৫ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হলো। এর মধ্যে ৩৬৫ জনের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার মেয়াদ শেষ হয়েছে। তাদের শরীরে কোন করোনাভাইরাস ধরা পড়েনি।

বর্তমান সারা জেলায় ৫৫০ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এসব তথ্য জানান ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন অফিসের পরিসংখ্যানবিদ জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি জানান, ঝিনাইদহ ৬টি উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কোন রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি। এদিকে শৈলকুপার হরিদেপুর গ্রামে আব্দুস সোবাহান নামে এক গাড়িচালককে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। শুক্রবার বেলা ১০টার দিকে ওই ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়। অন্যদিকে ওই গাড়িচালককে চিকিৎসা দেওয়ায় ডাক্তার সুকুমারের বাড়িও লকডাউন ঘোষণা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

গ্রামবাসী জানান, সোবাহান কয়েকদিন ধরেই তার ঠাণ্ডা, কাশি ও গলা ব্যাথাসহ জ্বরে আক্রান্ত। তিনি গোপনে নিজ বাড়িতে ছিলেন। বিষয়টি জানাজানি হলে শৈলকুপা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পার্থ প্রতিম শীল ঘটনাস্থলে গিয়ে গাড়ি চালককে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার নির্দেশ দেন এবং ডাক্তার সুকুমারের বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেন।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন