করোনা মোকাবেলায় জনগণের দুয়ারে ত্রাণ বিলিয়ে দিচ্ছেন পানিসম্পদ উপমন্ত্রী শামীম

  

পিএনএস : পেটে খেলে পিঠে সয়-এই কথাটি উপলব্ধি করেছেন তরুণ প্রজন্মের সফল পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য একেএম এনামুল হক শামীম। করোনা পরিস্থিতিতেও তিনি ছুটে যাচ্ছেন জনগণের দুয়ারে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য অনুসারী পানি সম্পদ উপমন্ত্রী শামীম শুধু কথার মাঝে সীমাবদ্ধ থাকেননি। তিনি তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বিলিয়ে দিচ্ছেন ত্রান সহযোগিতা। এ ব্যাপারে গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, তার নির্বাচনী এলাকা শরীয়তপুরের নড়িয়া ও সখিপুর থানায় করোনা আতঙ্কে ঘরবন্দি সাড়ে ১২ হাজার দুস্থ পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছেন।

রোববার (২৯ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি। নড়িয়া ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের মাধ্যমে ত্রাণের চালসহ অন্যান্য খাদ্য উপকরণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

নড়িয়া ও সখিপুর থানার ২৩টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় সাড়ে ১২ হাজার পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে।সহায়তার মধ্যে রয়েছে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু ও ১ কেজি ডাল, ১ লিটার সয়াবিন তেল ও ১টি সাবান।

এছাড়া নড়িয়া ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন আলোচনা করেন উপমন্ত্রী।

এ বিষয়ে পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম জানান, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে কোনো দুর্যোগে গরিব ও মেহেনতি মানুষের পাশে ছিলেন এবং আছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে কোনো গরিব না খেয়ে কষ্ট পায় না। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদশ আওয়ামী লীগ করোনা দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে এ সহায়তা দিয়েছি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন