ফেনীতে গৃহকর্মী তরুণীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার

  

পিএনএস ডেস্ক : ফেনীতে এক এতিম গৃহকর্মী তরুণীকে ধর্ষণ মামলার আসামী মো. পারভেজকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে ফেনী সরকারি কলেজের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সে সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নের দক্ষিণ খানে বাড়ির মাবুল হকের ছেলে। করোনাভাইরাসে লকডাউনের আগে সম্প্রতি সৌদিআরব থেকে দেশে আসে পারভেজ।

পাশবিক নির্যাতনের শিকার তরুণী জানান, মা-বাবা হারানোর পর অভাবের তাড়নায় ৬ বছর বয়স থেকেই ফেনী শহরের দুঃসম্পর্কের এক খালার বাসায় গৃহকর্মী হিসেবে আশ্রয় নিয়ে কাজ করতো তরুণী। সম্প্রতি সেই খালা মারা গেলে তরুণীটি ফেনী সদর উপজেলার শর্শদীর খানে বাড়ির একটি পরিবারে আশ্রয় নেয়।

গত মঙ্গলবার রাতে ঘরের বাইরে তরুণীকে একা পেয়ে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা একই বাড়ির পারভেজ তাকে মুখ চেপে বাড়ির শেষ সীমানায় একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে যায়। এসময় রাতভর তাকে ধর্ষণ করে তরুণীকে ফেলে পালিয়ে যায় পারভেজ। পরদিন সকালে বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয়রা তরুণীটিকে নিয়ে ফেনী মডেল থানায় হাজির হয়।

এসময় ভুক্তভোগী তরুণী বাদী হয়ে অভিযুক্ত বখাটে যুবক পারভেজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করে।

ফেনী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে পুলিশ রাতে ফেনী সরকারি কলেজের সামনে থেকে ধর্ষণ মামলার আসামী পারভেজকে গ্রেপ্তার করে। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন