সিনেমা হলে অনৈতিক কাজ, ৫ জনের সাজা

  

পিএনএস ডেস্ক: যশোরের মণিরামপুরে পূরবী সিনেমা হলে অনৈতিক কাজের সময় হাতেনাতে দুই নারী ও দুই পুরুষসহ এক দালালকে গ্রেপ্তার করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে আদালত তাদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়ে থানায় সোপর্দ করেন।

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোরশেদ আলম চৌধুরী আদালত পরিচালনা করে এই সাজা দেন। এসময় সিনেমা হলটি সিলগালা করে দিয়েছেন তিনি।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, উপজেলার বালিয়াডাঙা খানপুর গ্রামের কালিপদ দাসের ছেলে মহাদেব দাস (৩২) , বাকোশপোল গ্রামের জাবের মোল্লার ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩০), মোবারকপুর গ্রামের আজগর আলীর স্ত্রী সুমি খাতুন (২৫), কেশবপুরের বড়েঙ্গা গ্রামের মুক্তার মোল্লার ছেলে অজিয়ার মোল্লা (৩২) ও যশোর সদর উপজেলার শেখহাটি গ্রামের আবজাল হোসেনের মেয়ে সুসমিতা খাতুন (২০)।

এদের মধ্যে মহাদেব পূরবী সিনেমা হলের ম্যানেজার। সে দালাল সেজে সিনেমা হলে এসব খরিদ্দার আনার কাজ করে।

আদালত মহাদেবকে ছয় মাস ও বাকি চারজনকে তিনমাস করে সাজা দিয়েছেন।

এদিকে পূরবী সিনেমা হলে অভিযান চালানোর আগে অনৈতিক কাজের অভিযোগে বাজারের মধুমিতা সিনেমা হলে অভিযানে যান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী। তখন আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে হলে উপস্থিত সবাই পালিয়ে যান।

তার আগে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে পৌরশহরের তাহেরপুর এলাকায় আল আমিন পার্কে অভিযান চালিয়ে অনৈতিক কাজের অভিযোগে পার্কের মালিক আব্দুর রহমানকে দশ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।

পৃথক এসব অভিযানে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে থানার এসআই হাসান উপস্থিত ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) খোরশেদ আলম চৌধুরী অভিযান ও সাজার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন