বিশ্বে সবচেয়ে লম্বা পায়ের জন্য কিশোরীর গিনেস রেকর্ড

  


পিএনএস ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পায়ের জন্য রেকর্ড গড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ম্যাকি কুরিন নামের ওই কিশোরী। তার বয়স মাত্র ১৭ বছর। এর মধ্যেই সে দু'টি রেকর্ড অর্জন করেছে। ম্যাকি কুরিন নারীদের মধ্যে সবচেয়ে লম্বা পা এবং কিশোরীদের মধ্যেও সবচেয়ে লম্বা পায়ের কারণে গিনেস বুকে দু'টি রেকর্ড গড়েছে।

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড অনুযায়ী, ম্যাকি কুরিন'র বাম পায়ের উচ্চতা ১৩৫ দশমিক ২৬৭ সেন্টিমিটার বা ৫৩ দশমিক ২৫৫ ইঞ্চি এবং তার ডান পায়ের উচ্চতা ১৩৪ দশমিক ৩ সেন্টিমিটার বা ৫২ দশমিক ৮৭৪ ইঞ্চি। তার মোট উচ্চতা ৬ ফুট ১০ ইঞ্চি। আর তার দুই পায়ের উচ্চতা ৪ ফুটের বেশি। অর্থাৎ তার মোট উচ্চতার ৪০ ভাগই হচ্ছে তার পা।

ম্যাকি জানিয়েছে, যেসব ব্যক্তির অস্বাভাবিক শারীরিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে তাদের এ নিয়ে লজ্জা পাওয়া উচিত নয়। নিজেকে আড়াল করা উচিত নয়। তার মতে, এই রেকর্ডটি সব লম্বা নারীদের অনুপ্রাণিত করবে।

ম্যাকির এই রেকর্ড সম্পর্কে তার মা জানিয়েছেন, তিনি আগেই বুঝতে পেরেছিলেন যে অন্যান্য বাচ্চাদের চেয়ে ম্যাকি বেশ খানিকটা লম্বা। কারণ মাত্র ১৮ মাস বয়সেই ম্যাকির উচ্চতা ছিল ২ ফুট ১১ ইঞ্চি।

এই কিশোরী জানিয়েছে, সে তার বাড়ির সব সদস্যের চেয়ে লম্বা। তার মতে, লম্বা হওয়ার কিছু সুবিধার পাশাপাশি অসুবিধাও আছে। সে জানিয়েছে, তাকে কখনও তার পায়ের জন্য কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি। তবে সবার চেয়ে লম্বা হওয়ার কারণে অনেকেই তাকে নিয়ে মজা করে।

ইতোমধ্যেই ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ টিকটকে বেশ জনপ্রিয় ম্যাকি। সে ভবিষ্যতে মডেল হিসেবে কাজ করতে চায়। এমনকি সে চায় বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মডেল হিসেবেও খ্যাতি অর্জন করতে।

এর আগে রাশিয়ার একেতেরিনা লিসিনার দখলে এই রেকর্ড ছিল। লম্বায় ওই রুশ তরুণীর পায়ের দৈর্ঘ্য ছিল ৫২.২ ইঞ্চি। কিন্তু তার ওই রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে ম্যাকি কুরিন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন