নওয়াজ উদ্দিনের আফসোস!

  

পিএনএস ডেস্ক : নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। বলিউডের হালের তুখোড় অভিনেতাদের মধ্যে প্রথম সারিতে আছেন তিনি। চরিত্রের প্রয়োজনে যে কোনও রূপ ধারণ করতে পারেন তিনি। বাণিজ্যিক ছবির চেয়ে গল্প নির্ভর ছবিতেই গুরুত্ব দিয়ে থাকেন তিনি।

সম্প্রতি লস অ্যাঞ্জেলেস-ভিত্তিক মাল্টি প্ল্যাটফরম সাময়িকী 'হলিউড রিপোর্টার' নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিকে 'হ্যান্ডসাম' অভিনেতা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন। এখানেই ক্ষান্ত হয়নি, সেই সাথে তাঁকে তুলনা করেছে ইতালীয় অভিনেতা মার্চেল্লো মাস্ত্রোয়ানির সঙ্গে।

আর এর প্রতিক্রিয়ায় নওয়াজ বলেছেন, 'আমেরিকান সিনেমা নিয়ে এক বিখ্যাত পাবলিকেশনের মতামতকে আমি গুরুত্ব দিই। আমাদের দেশে কোনোদিন অবশ্য আমাকে হ্যান্ডসাম বলা হয়নি।

তবে মাস্ত্রোয়ানির সঙ্গে তুলনা করার ব্যাপারটায় তিনি একটু লজ্জিতই হয়েছেন। তাঁর মতে, মার্চেল্লোর পর্দা-উপস্থিতি দর্শককে আটকে রেখে দেয়, কারণ তিনি একজন অসম্ভব দক্ষ অভিনেতা।

'মান্টো'র আলোচনা প্রসঙ্গেই হলিউড রিপোর্টার এই তুলনা টেনে এনেছে। নওয়াজের মতে সাদাত হাসান মান্টো ছিলেন খুবই নিয়ন্ত্রিত মানুষ। কখনোই উচ্চস্বরে কথা বলতেন না। অথচ, কোনোদিনই তাঁর কোনো কথা শুনতে মানুষের অসুবিধে হয়নি। এই অভ্যেস মার্চেল্লোরও ছিল।

অনেকেই লক্ষ করেছেন মার্চেল্লোর মতো নওয়াজও খুব একটা উচ্চস্বরে কথা বলেন না। তবু জানালেন, আমি গত মাস দেড়েক রোমে কাটিয়ে এলাম তন্নিষ্ঠা চট্টোপাধ্যায়ের একটি ছবিতে কাজ করতে গিয়ে। সেই সময় আমি এমন একটি মিউজিয়াম ঘোরার সুযোগ পেলাম যেটা সম্পূর্ণভাবে মার্চেল্লো মাস্ত্রোয়ানির প্রতি নিবেদিত।

তাঁর অভিনীত ছবির সমস্ত নিদর্শন প্রদর্শিত হচ্ছে। অথচ, ভাবলে কষ্ট হয় আমাদের দেশে অশোককুমার কিংবা দেবানন্দকে নিয়ে কোনো জাদুঘর আজ পর্যন্ত তৈরি হলো না!

মাইকেল কিটন, লিওনার্ডো ডিক্যাপ্রিও'র অভিনয় তাঁকে মুগ্ধ করে। এই ধরনের ভিন্নতর চরিত্রায়ণ তাঁর পছন্দ বলেছেন তিনি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech