চিত্র-বিচিত্র

যে গ্রামে সন্তান জন্ম দেয়া নিষিদ্ধ!

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী মানব শিশুর জন্ম হয়। কেউ জন্ম নেয় নিজ বাড়িতে, কেউ বাড়ির বাইরে হাসপাতালে। তবে ঘানার এক গ্রামে রয়েছে অদ্ভুত নিয়ম। সেখানে মায়েরা তাদের সন্তানদের নিজ গ্রামে জন্ম দিতে পারেন না।বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, দেশটির মাম্ফে ডোভ গ্রামে গর্ভবতী মা তাদের বাচ্চাদের ওই গ্রামে জন্ম দিতে পারেন না। গ্রামবাসীর বিশ্বাস বাচ্চাকে গ্রামের ভেতর জন্ম দিলে তা ঈশ্বরকে অসন্তুষ্ট করবে।এই ঐতিহ্য যাতে না ভাঙে সেজন্য গর্ভবতী মায়েরা বাচ্চা জন্ম দেয়ার সময় তাদের নিজ গ্রাম থেকে

টাক মাথার লোকেরাই সবচেয়ে সফল ও বুদ্ধিমান!

  

পিএনএস ডেস্ক : টাক মাথাওয়ালাদের জন্য বিরাট সুখবর নিয়ে এসেছে বিশ্বখ্যাত সাময়িকী বিজনেস ইনসাইডার। একটি জরিপের বরাত দিয়ে সাময়িকীটি জানিয়েছে, পৃথিবীতে টাক মাথার লোকেরাই বেশি তেজস্বী, সফল ও বুদ্ধিমান।যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় জানা যায়, টাক মাথার পুরুষরাই অনেক বেশি কর্তৃত্বপরায়ণ হন। এই গবেষণার ফলাফল জানলে টাক মাথাওয়ালা পুরুষদের নতুন করে চুল গজানোর জন্য আর অর্থ ও সময় ব্যয় করার প্রয়োজন হবে না।মার্কিন বিজ্ঞানী আলবার্ট ই ম্যানেস ২০১২ সালে নিজের মাথার চুল ফেলে দিয়েছেন

কবর থেকে মরদহে তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠান!

  

পিএনএস ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি পর্বতের গ্রামবাসী কিছু অদ্ভুদ সামাজিক রীতি পালন করে থাকে। মৃতের জন্য অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের পর সপ্তাহখানেক পর মৃতদেহকে কবর থেকে তুলে জাঁকজমক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গ্রামের অধিবাসী তোরাজান উপজাতি এই অন্তেষ্টিক্রিয়া বা শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা একবার নয়, এমনটি করে থাকে প্রতি তিন বছর পর পর।গত কয়েক শতাব্দী ধরে এমন অদ্ভুত রীতি পালন করে আসছেন তোরাজান উপজাতি। শতাব্দী প্রাচীন এ রীতির নাম ‘মানিন’।দেশটির এক গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে,

রহস্যময় প্রাণী, মাছ নাকি অন্যকিছু?

  

পিএনএস ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার নর্থ টেরিটোরির কাকাডু ন্যাশনাল পার্কে মাছ ধরছিলেন অ্যান্ড্রু রোজ। হঠাৎ পানিতে এমন একটা মাছ উঠল, যা দেখে চমকে উঠলেন তিনি। বিরল প্রজাতির মাছটিকে দেখে প্রথমে অ্যান্ড্রু বুঝেই উঠতে পারেননি এটা মাছ, নাকি অন্য কিছু!মাছের মতো দেখতে ওই প্রাণীটি দেহ প্রায় ১৫ সেন্টিমিটার লম্বা। কালো রঙের লিকলিকে দেহের ওই প্রাণীর মুখটা চ্যাপ্টা। কিন্তু মুখে না আছে কোন চোখ, না আছে মুখগহ্বর। অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা অ্যান্ড্রু রোজের বড়শি মধ্যে বিঁধেছিল সেটি। অ্যান্ড্রু জানিয়েছেন, এ রকম

মানুষের মাথায়ও এমন শিং গজায়!

  

পিএনএস ডেস্ক : ছোট বেলায় একটা কুসংষ্কার আমরা অনেকেই শুনেছি। মাথায় মাথায় একবার ঠোকা লাগলে নাকি শিং গজায়! তাই একবার ঠোকা লেগে গেলে আর একবার নিজেই ঠুকে নিতে হয়। এটাই ‘নিয়ম’! না হলেই মাথায় শিং গজাবে। মানুষের মাথায় কি আবার শিং গজাতে পারে! হ্যাঁ, পারে। ২ ইঞ্চি, ৩ ইঞ্চি বা ৫ ইঞ্চি শিং মানুষের মাথাতেও গজায়। এমন অনেক নজির রয়েছে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক...এক বিশেষ ধরনের চর্মরোগের প্রভাবে মানুষের শরীরেও গরু, ছাগল, হরিণের মতো শিং গজাতে দেখা যায়। বিজ্ঞানের

বিয়ের প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ায় মোবাইল টাওয়ারে তরুণী!

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রেমিকার বাড়ির লোক বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় হইচই বাঁধিয়ে গোটা গ্রাম মাথায় তুলেছে প্রেমিক জয়৷ মদ্যপ অবস্থায় জলের ট্যাংকে উঠে গোটা গ্রামের কাছে বিচার চায় সে৷ শেষমেশ প্রেমিকা বাসন্তীর মাসি বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়ে যায়৷ শান্ত হয় জয়৷ শোলে সিনেমার সেই দৃশ্যের প্রতিফলন ঘটল বাস্তবে৷ তবে জয়ের জায়গায় দেখা গিয়েছে ২৩ বছরের মালিকাকে৷ আর জলের ট্যাংকের জায়গা নিয়েছে মোবাইল টাওয়ার৷ঘটনাটি তেলেঙ্গানার৷ এন বাবু নামে এক যুবকের সঙ্গে নয় বছরের সম্পর্ক মালিকার৷ সম্প্রতি

কুকুর বিক্রি করে ঋণ পরিশোধ!

  

পিএনএস ডেস্ক : সংসারে মন্দা চলছে। ঋণের ভারে জর্জরিত। কিন্তু পাওনাদার সে কথা শুনবেন কেন? শোনেননি। উত্তর-পশ্চিম জার্মানির এক শহরে ঋণ মেটাতে না পারা পরিবার থেকে তাই পাওনাদার নিজের প্রাপ্য আদায় করে নিলেন নিজের মতো করে। যা করলেন, তা নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। বহু আলোচিত, সমালোচিত।স্বামী, স্ত্রী, তিন সন্তান নিয়ে পাঁচজনের পরিবার। বাজার থেকে ঋণ নিয়েই দিন কাটাচ্ছিলেন তারা। ক্রমশই বাড়ছিল ঋণের বোঝা। অথচ শোধও করতে পারছিলেন না। জার্মানির মতো দেশে অর্থনৈতিক পরিস্থিতির এমন ছবিও দেখা যায়। আশ্চর্যের হলেও, এটাই

পরীক্ষা চলাকালে ‘ফেসবুক লাইভ’ ছাত্রীর!

  

পিএনএস ডেস্ক : পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেন কর্তৃপক্ষ। কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে দিয়ে নেওয়া হয় পরীক্ষা। মোবাইল, ঘড়িসহ ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহারেও থাকে নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু এতকিছু নিয়ম উপেক্ষা করে এবার এক ছাত্রী পরীক্ষা দিতে দিতেই নিজের মোবাইলে ফেসবুক লাইভ করলেন।শনিবার ভারতের পূর্ব বর্ধমানের কালনা কলেজ এ ঘটনা ঘটেছে।ওই কলেজের তৃতীয় বর্ষের টেস্ট পরীক্ষা চলাকালে মোবাইলের পরদায় ভেসে উঠে উত্তরপত্র। দেখা যায়, আশপাশের বেঞ্চে পরীক্ষা দিচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। তারই

জুতার মধ্যে অজগর!

  

পিএনএস ডেস্ক : স্কটল্যান্ড থেকে অস্ট্রেলিয়া বেড়াতে গিয়েছিলেন মারিয়া বক্সাল। ফিরে আসার পর যখন সুটকেস খোলেন তখন চোখে পড়ে তার মধ্যে থাকা জুতার ভিতরে রয়েছে একটি সাপ। প্রথমে সেটিকে দেখে প্লাস্টিকের বলেই ভেবেছিলেন তিনি।তার মনে হয়েছিল, মজা করার জন্যই কেউ নতুন জুতার মধ্যে সেটা রেখেছেন। পরীক্ষা করার জন্য সাপটির গায়ে হাত দিতেই চোখ কপালে ওঠে তার। হাতের স্পর্শে নড়ে ওঠে সাপটি। তারপরই তার বোধগম্য হয় যে সেটি আসলে জ্যান্ত। ঘাবড়ে গিয়ে স্কটল্যান্ডের বনপ্রাণী সংস্থা স্কটিশ সোসাইটি ফর দ্য প্রিভেনশন অফ

যে ট্রেনের যাত্রী শুধুই নারী!

  

পিএনএস ডেস্ক: গণপরিবহনে নারীদের জন্য সংরক্ষিত আসনের কথা সবারই জানা। তেমনি আস্ত একটি বাহন নারীদের জন্য বরাদ্দের ঘটনা বাংলাদেশেও আছে। কিন্তু আস্ত একটি ট্রেন শুধুই নারীদের যাতায়াতের জন্য ব্যবহৃত হয়, তা হয়তো ব্যতিক্রমী। ভারতের মুম্বাইয়ে রয়েছে এমনই একটি রেলগাড়ি।১৯৯২ সালে মুম্বাই শহরতলিতে নারীদের জন্য চলাচলকারী ট্রেনটি শুধু ভারতেই নয়, সারা বিশ্বেই প্রথম। প্রয়োজনীয়তার দিক থেকে এটি এখনো ধরে রেখেছে তার অবস্থান। প্রায় ২৭ বছর পরে ট্রেনটির প্রয়োজনীয়তা বরং আরও বেড়েছে। সে জন্যই ট্রেনে ওঠার সময় দেখা যায়

Developed by Diligent InfoTech