চিত্র-বিচিত্র

মশা যাদের রক্ত বেশি পছন্দ করে!

  

পিএনএস ডেস্ক : আপনি হয়তো একটু লক্ষ্য করলে দেখবেন, আপনারা দু'জন একসঙ্গে বসে আছেন। অথচ আপনার পাশের লোককেই বেশি মশা কামড়াচ্ছে! দু'জনই ব্যাপারটা খেয়াল করছেন। কিন্তু এর কারণ বুঝতে পারেন না?তাহলে জেনে রাখুন, মশারা কিন্তু ‘ও’ পজিটিভ গ্রুপের রক্ত খেতে বেশি পছন্দ করে! তাই যদি আপনার 'ও' পজিটিভ গ্রুপের রক্ত হয়, মশা তো আপনাকে কিছুতেই ছাড়বে না। আপনি মশার কাছে প্রায় অমৃত সমান। তাছাড়া আরও কিছু অদ্ভূত কিন্তু বিজ্ঞানসম্মত কারণে মশা আমাদের কামড়িয়ে থাকে। মশা কেন বেছে বেছে কিছু মানুষদেরই বেশি

টুকটুকে লাল দুপুরমণি

  

পিএনএস, ঘিওর (মানিকগঞ্জ) অরুণ রঙের অনিন্দ্য সুন্দর ফুল দুপুরমণি। ফুলটি বড্ড নিয়মে বাঁধা। ফোটে দুপুরে, ঠিক ১২টায়। এ জন্য এর নাম দুপুরমণি। এটি এক বুনো প্রকৃতির অনাদৃত গাছ। তবে রক্তরাঙা ফুলগুলো যখন ফোটে তখন কিন্তু এর সৌন্দর্যকে আর উপেক্ষা করা যায় না। টুকটুকে লাল। পিরিচের আকৃতিতে ছোট ছোট ফুল ফুটে গাছ আলো করে।এ ফুল দুপুরে ফোটে বিকেল হলেই ধীরে ধীরে নেতিয়ে পড়ে। ফুলপ্রেমীরা বাগানের শোভাবর্ধনে এটি বাড়ির আঙিনায় বা বাগানে বুনে থাকেন।ভেষজ চিকিৎসায় এ গাছের ব্যাপক গুরুত্ব রয়েছে। একে কেউ বলেন

যে কলার দাম এক লাখ টাকা

  

পিএনএস ডেস্ক:যুক্তরাজ্যের সুপারমার্কেট আসডা থেকে অনলাইনে মেয়ের জন্য একটি কলা কিনেছিলেন ববি গর্ডন। এরপর তিনি জানতে পারলেন, সেই কলার বিল হয়েছে ৯৩০ পাউন্ড বা বাংলাদেশি টাকায় এক লাখ ১০ হাজার টাকা।যদিও এর দাম হওয়ার কথা ১১ পেন্স বা কমবেশি ১৩ টাকার মতো। নটিংহ্যামের শেরউডের ববি গর্ডন বলছেন, প্রথমে বিলটি দেখে তিনি হতবাক হয়ে যান।তার ক্রেডিট কার্ডে বিলটি চার্জ করা হলেও, কার্ড কোম্পানির প্রতারণা ঠেকানোর টিম সেটি আটকে দিয়ে তাকে ক্ষুদে বার্তা পাঠায়।মিজ গর্ডন প্রথমে বিলটি দেখে অবাক

বালিশ যখন জীবন্ত চিতাবাঘ!

  

পিএনএস ডেস্ক : ডল্ফ সি ভলকর। দক্ষিণ আফ্রিকান এই প্রাণীবিদ পেশায় অ্যানিম্যাল অ্যাডভোকেট। ডল্ফ চিতা এক্সপিরিয়েন্সে ভলেন্টিয়রের কাজ করতেন। কাজ করতে করতেই চিতাদের সঙ্গে তার গভীর বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠে। রাতের বেলা নরম বালিশ হলে ঘুম ভাল হয়। কিন্তু তা বলে সব ছেড়ে ছুড়ে চিতা! হ্যাঁ, শেষ পর্যন্ত খোদ চিতার পশমে মোড়া শরীরকেই বালিশ হিসাবে ব্যবহার করলেন এই ব্যক্তি! শুধু তাই নয়, চিতার সঙ্গে কাটানো সেই মুহূর্তের ভিডিও তুলে শেয়ারও করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। বন্য পশুর সঙ্গে মানুষের গভীর হৃদ্যতার সেই

গোপাল ভাঁড় কে ছিলেন?

  

পিএনএস ডেস্ক : মিষ্টির দোকানে থরে থরে সাজানো রয়েছে সন্দেশ, পানতোয়া, রসগোল্লাসহ হরেক মিষ্টান্ন। এমন রসাল মিঠাই দেখে কার না জিবে জল আসে! ছোট্ট গোপালেরও এল। মামাবাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন তিনি। পথিমধ্যে দোকানে মিষ্টি দেখে জিবে জল আসার সঙ্গে সঙ্গে তাঁর খিদেও গেল বেড়ে। পেটে যেন শুরু হলো ছুঁচোর কেত্তন। কিন্তু হাতে কোনো টাকাপয়সা নেই। কী করা যায়? গোপাল দেখলেন, দোকানে বসে আছে ময়রার ছেলে। আর তার বাবা দুপুরের খাবার খাচ্ছে পেছনের ঘরে বসে। অমনি থালায় সাজানো মিষ্টি টপাটপ করে খেতে শুরু করলেন তিনি।

নববর্ষে চার হাজার টাকায় দুপুরের খাবার!

  

পিএনএস ডেস্ক: বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উপলক্ষে লা মেরিডিয়ান ঢাকা আয়োজন করেছে মাস্টার শেফ শীতলের বিশেষ বৈশাখী বুফে লাঞ্চ ও ডিনার। সাথে থাকবে ঐতিহ্যবাহী নানা খাবারের সমারোহ।খাবারের আয়োজনে থাকছে শুকনা মরিচ ও পেঁয়াজের সাথে মাছ ভাজা, ট্যাংরা মাছের দো-পেঁয়াজা, মাছের পোলাও, মোরগ পোলাও, হাঁস ভুনা, গরুর মাংসের কালা ভুনা, শোল মাছের ঝোল, বাইন মাছ ভুনা, খাসির চুইঝাল, চিংড়ি দিয়ে করলা ভাজি, ধনে পাতার ডাল চচ্চড়িসহ সুস্বাদু নানা পদ। আরও থাকবে ভারতীয়, পশ্চিমা ও চীনা খাবারের আয়োজন হিসেবে ইন্ডিয়ান স্টেশন, ওয়েস্টার্ন

গাড়ির নম্বর প্লেটের মূল্য ১৩২ কোটি টাকা!

  

পিএনএস ডেস্ক:কী এমন অমূল্য হতে পারে গাড়ির নম্বর প্লেট। যে তার জন্য কোটি কোটি টাকার বাজি ধরবেন ক্রেতারা। এমনই অসম্ভব কাণ্ড ঘটেছে ব্রিটেনে। এক দেড় লাখ টাকায় নয়, গাড়ির একটি নম্বর প্লেট বিক্রি হয়েছে ১৩২ কোটি টাকায়। বাইরের দেশের তারকারা অনেক সময় নিজের পছন্দের নম্বর প্লেটের জন্য লাখ খানেক টাকা খরচ করেন বটে। তবে ১৩২ কোটি টাকা খরচ করার কথা শোনা যায়নি কখনও। এমন অসম্ভব ঘটনা সত্যিই ঘটেছে ব্রিটেনে। F1 নম্বর প্লেটটি কেনার জন্য যেকোনও মূল্য দিতে রাজি ছিলেন ব্রিটেনের একাধিক ব্যক্তি। এই নম্বর

এখন ছেলেরাও পরবে স্কার্ট!

  

পিএনএস ডেস্ক:শুধু ছাত্রীরা নয়, এখন থেকে ছেলেরাও চাইলে স্কার্ট পরতে পারবে। এমনটাই জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের আপিনঘ্যাম স্কুল কর্তৃপক্ষ।ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক রিচার্ড মেলোনি জানান, ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে লিঙ্গ সমতা ফেরাতেই এই ব্যবস্থা আানা হয়েছে। কেউ যদি অন্য লিঙ্গের মতো আচরণ করতে চায়, তাহলে তাঁকে পূর্ণ সুযোগ দেওয়া হবে।ওই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র ব্রিটিশ টেলিভিশন ডিরেক্টর ক্রিশ্চিয়ান জেসেন জানান, তাঁদের সময়ে স্কার্ট পরার সুযোগ ছিল না। যদি সুযোগ থাকত তাহলে তিনি স্কার্ট পরেই আসতেন।১৯৮৪

কুমির ভর্তি জলাশয়ে যুবকের ঝাঁপ, অতঃপর...!

  

পিএনএস ডেস্ক:মদ্যপান করে কুমির ভর্তি জলাশয়ে ঝাঁপ দিল জিম্বাবুয়ের এক যুবক। সৌভাগ্যবশত প্রাণে বেঁচে গেলেও তার একটি হাত কুমীরে কামড়ে ছিঁড়ে নিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৬ এপ্রিল রাতে।‌খবর অনুযায়ী, কলিন মিলার নামের সেই যুবক একটি সংরক্ষিত এলাকায় ঢুকে পড়ে বেড়া টপকে জলাশয়ে ঝাঁপ দেন। সেখানেই ছিল তিনটি কুমীর।জানা যায়, যুবক যে পানশালায় মদ্যপান করছিলেন, জলাশয়টি তার খুব কাছেই। মিলার সেই পানশালার রান্নাঘর দিয়ে বেরিয়ে বেড়া টপকে সরাসরি জলাশয়ে ঝাঁপ দেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত আরও দু’জন সঙ্গে সঙ্গে

পর্নোগ্রাফিতে আসক্ত হচ্ছে শিশুরাও

  

পিএনএস ডেস্ক: রাজধানীর নাম করা একটি ইংলিশ মিডিয়ামের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী সামিনা অলিরা (ছদ্মনাম)। প্রতিনিয়ত সে তার মায়ের মোবাইলে ইন্টারনেটে গেমস খেলে। খেলতে খেলতে একদিন গেমসের সঙ্গে অনেক পর্ন সাইটের লিংক দেখতে পায় সে এবং ক্লিক করে, সে অনেকটা গোপনীয়তার সঙ্গে সেইসব পর্ন সাইটে প্রবেশ করে।সবচেয়ে ভয়ংকর ব্যাপার হলো ধীরে ধীরে সে গেমসের চেয়ে পর্ন সাইটে সময় কাটাতে বেশি পছন্দ করা শুরু করে। এমনকি এসব লিংকের কথা স্কুলের বন্ধুদের জানায়। তারাও সামিনা অলিরার মতো প্রতিনিয়ত পর্ন সাইটে আসক্ত হয়ে

Developed by Diligent InfoTech