চিত্র-বিচিত্র

‘মানুষমুখো মাছ’! তোলপাড় সোশাল মিডিয়া

  

পিএনএস ডেস্ক: রূপকথার গল্পে আমরা অসংখ্যবার মানুষরূপী মাছ বা মৎস্যকন্যার কথা শুনেছি। কিন্তু, বাস্তবে এর অস্তিত্ব নেই বললেই চলে।কিন্তু সবার ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে এবার দেখা মিলল মানুষমুখো মাছের। একটি লেকে সেই মাছের ঘুরে বেড়ানোর ভিডিও ইতিমধ্যেই অনলাইন দুনিয়ায় ভাইরাল।জানা যায়, চিনের দক্ষিণ প্রান্তে অবস্থিত কানমিং শহর সংলগ্ন মিয়াও গ্রামের একটি লেকে মানুষমুখো মাছের দেখা মেলে। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিও দেখে নেটিজেনরা বলছেন হ্যারি পটারের গল্পে থাকা ভলডেমর্ট চরিত্রটি মাছ রূপে

মানুষ-মুখো মাছ!

  

পিএনএস ডেস্ক : মানুষ-মুখো মাছ, যা দেখলে অবাক হওয়ারই কথা। চীনের এক লেকে এমনই এক মাছের দেখা মিলেছে। আর সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই হইচই পড়ে গেছে। সবাই ওই মুখের মধ্যে নানা পরিচিত জনের ছায়া দেখতে পাচ্ছেন। আসলে মাছটির মুখ অনেকটাই মানুষের মতো।জানা গেছে, ভিডিওটি তুলেছেন দক্ষিণ চীনের এক বাসিন্দা। কানমিং শহরের একটি লেকে মাছটি দেখেন তিনি। কালবিলম্ব না করে ভিডিও করে নেন এবং তা সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। আর তার পর থেকেই কমেন্টের বন্যা। অমুক বা তমুকের মতো দেখতে বলে যেমন অনেকে কমেন্ট করেছেন

কানে আরশোলার বাসা!

  

পিএনএস ডেস্ক : চীনের ২৪ বছর বয়সী এলভির ডান কানে বেশ কয়েকদিন ধরেই প্রচণ্ড ব্যথা হচ্ছিল। সেই ব্যথা চরমে ওঠায় বিছানায় শুয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করছিলেন তিনি। সে সময় তার পরিবারের লোকজন টর্চের আলোতে দেখেন, এলভির কানের মধ্যে রয়েছে বড় আকারের আরশোলা!এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হুইজহাউ শহরের সানহে হাসপাতালে। সেখানে তার কান পরীক্ষা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। আর সেটা করতে গিয়েই চমকে যান চিকিৎসকরা। তারা দেখেন, এলভির কানের মধ্যে আরশোলার পুরো পরিবার রয়েছে।সানহে হাসপাতালের চিকিৎসক ঝং ইজিং বলেন, কানে প্রচণ্ড

৫০টি ডিম খাওয়ার বাজি, ৪১টি খাওয়ার পরেই প্রাণ হারালেন যুবক!

  

পিএনএস ডেস্ক : যুগ পাল্টেছে, সব কিছুর সাথে বাজি ধরাও স্মার্ট হয়েছে। সেটা হলো অনলাইনে বাজি ধরা। এক্ষেত্রে আপনি দেশ বিদেশের সবার সাথে বাজি ধরতে পারবেন নিশ্চিতে।বন্ধুর সঙ্গে বাজি ধরেছিলেন ৫০টি ডিম খাওয়ার। খেতে পারলেই মিলবে ২০০০ টাকা। ৪১টি খেয়েও ফেলেছিলেন। কিন্তু ৪২তম ডিম খাওয়ার সময় প্রাণ হারালেন এক ব্যক্তি। উত্তরপ্রদেশের জৌনপুর জেলার শাহগঞ্জ থানা এলাকার এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মৃত ব্যক্তির নাম সুভাষ যাদব (৪২)।শাহগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার জেপি সিংহ জানিয়েছেন, এক বন্ধুর

মাটির নিচে ৮০০ বছরের পুরোনো ‘সোনার সুড়ঙ্গ’

  

পিএনএস ডেস্ক: মাটির নিচে ৮০০ বছরের পুরোনো সোনার সুড়ঙ্গের খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানীরা। খোঁজ মিলল যোদ্ধাদের গোপন সদর দফতরেরও। এখন শুধু খোঁড়াখুঁড়ি করে সেই সম্পত্তি তুলে আনার অপেক্ষা। উন্নত প্রযুক্তির লেজার প্রযুক্তি ব্যবহার করে এই সুড়ঙ্গের খোঁজ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।ন্যাশনাল জিয়োগ্রাফিক চ্যানেলের বিজ্ঞানী লিন এবং তার দল সম্প্রতি ইসরায়েলে এই সোনার সুরঙ্গের খোঁজ পেয়েছেন। চ্যানেলটিতে তা সম্প্রচার করাও হয়েছে। লিন জানিয়েছেন, একাদশ শতকে ধর্মযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের শহর একরির নিচে খ্রিষ্টান

মায়ের জন্য সুদর্শন পাত্রের সন্ধানে কন্যা!

  

পিএনএস ডেস্ক: কন্যার জন্য দেখতে শুনতে ভালো ও প্রতিষ্ঠিত পাত্রের সন্ধান করেন সব বাবা-মা। কখনো কখনো নিজের একজন যোগ্য লাইফপার্টনারের সন্ধানে নামতেও দেখা যায় অনেককে। কিন্তু যুগের হাওয়ায় পাল্টে গেছে সব রীতিনীতি।। সম্প্রতি মায়ের জন্য একজন সুদর্শন পাত্র খুঁজতে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন এক তরুণী!গত বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) টুইটারে মায়ের সঙ্গে তোলা একটি সেলফি পোস্ট পাত্রের সন্ধান চাওয়া ওই তরুণীর নাম আস্থা ভারমা। ভারতের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আইনের ওই ছাত্রী লিখেছেন, আমার প্রিয় মায়ের জন্য ৫০ বছর বয়সী

পাশের ছাদে বিকৃত যৌনতার ইঙ্গিত, ফেসবুকে তরুণীর ভিডিও পোস্ট

  

পিএনএস ডেস্ক : বাসার পাশের ছাদে বিকৃত যৌনতা। সেই ছাদে কীভাবে যাওয়া সম্ভব। অনবরত আসে ইঙ্গিত। কিন্তু এবার যেন মাত্রা ছড়িয়ে পড়ল। এক তরুণী সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন ভয়াবহ অভিজ্ঞতার ভিডিও। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, তরুণীকে দেখে পাশের বাসার এক 'বিকৃত রুচি'র ব্যাক্তি ছাদে আসে। ছাদে শুকোতে দেওয়া সালোয়ার টেনে ছিঁড়ে ফেলে। এরপর সেটা নিজের গোপনাঙ্গের নিকট নিয়ে গিয়ে বাজে ইঙ্গিত করতে থাকে। রুপা নামের ওই মেয়েটি ভিডিও পোস্ট করে লিখেছেন, আমার নিজের করা ভিডিও১ নভেম্বর,২০১৯;দুপুর ১২.৩৬শেষ পর্যন্ত

যেভাবে বিজ্ঞানীর ফোন বিল বাড়িয়ে দিল ঈগল!

  

পিএনএস ডেস্ক: রাশিয়ার একজন বিজ্ঞানী ঈগল পাখি নিয়ে গবেষণা করেন। এই গবেষণার কারণে ফোন বিল দিতে গিয়ে রীতিমতো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খালি হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছিল তার।গবেষণায় তিনি মোট ১৩ টি ঈগল পাখির পায়ে তাদের গতিপথ দেখার জন্য ‘ট্র্যাকিং ডিভাইস’ বসিয়েছিলেন। যে ডিভাইস তার মোবাইল ফোনে টেক্সট মেসেজ পাঠায়।রাশিয়া ও কাজাখস্থান থেকে পাখিগুলোর গতিপথের উপর নজর রাখা শুরু করেন তিনি। কিন্তু মুশকিল হল পরিযায়ী এই ঈগল পাখিগুলোর মধ্যে একটি নারী ঈগল শুধু রাশিয়া ও কাজাখস্থানের সীমান্ত পর্যন্ত

ত্রিকোণ প্রেমে বন্য হাতির মারামারি (ভিডিও)

  

পিএনএস ডেস্ক: নারী-পুরুষের ত্রিকোণ প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে মারামারি, খুনির উদাহরণ রয়েছে অনেক। কিন্তু বন্যপ্রাণীদের মধ্যে এমন সম্পর্ক থাকে কী না জানি না।তবে হাতিরাও ত্রিকোণ প্রেমে জড়িয়ে পড়েছে বলে জানা গেছে। আর সঙ্গিনী নিয়ে লড়াইও করেছে দুটি পুরুষ হাতি! ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের ঝাড়গ্রাম জেলার লালগড় রেঞ্জের ঝিটকার জঙ্গলে দুটি হাতির লড়াইয়ের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সম্প্রতি। আর ওই ভিডিও নাকি ত্রিকোণ প্রেমের জন্য লড়াইকে প্রমাণিত করেছে। একটি মহিলা হাতিকে (হস্তিনী) নিয়েই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুই পুরুষ

পোষ্য বিড়ালের কৌশলে প্রাণে বাঁচলেন দম্পতির

  

পিএনএস ডেস্ক: পশুপাখিরা নাকি বিপদের খবর একটু আগেই পায়। সম্প্রতি তেমনটাই প্রমাণ দিল দুই বিড়াল। ইতালির ক্লদিও পিয়ানা ও তার স্ত্রী সাবরিনা পেলেগ্রিনি পোষ্য বিড়ালগুলোর জন্য নিজেদের জীবন বাঁচাতে পেরেছেন।ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিন চারেক আগের ঘটনা। নিজেদের বাড়িতে ঘুমিয়েছিলেন ইতালির ওই দম্পতি। তারা যখন গভীর ঘুমে মগ্ন, ঠিক তখন চিৎকার-চেঁচামিচি শুরু করে তাদের দুই পোষ্য বিড়াল সিম্বা ও মোজ। তাদের চিৎকার শুনে ঘুম ভেঙে যায় সাবরিনার। চিৎকার থামাতে বিড়াল দুটোর কাছে গিয়ে দেখেন,

Developed by Diligent InfoTech