অর্থনীতি

৫০ টাকার নতুন নোট দেখতে যেমন!

  

পিএনএস ডেস্ক: পঞ্চাশ টাকার নতুন নোট বাজারে আসছে আগামী ১৫ ডিসেম্বর। ১০ ও ৫০ টাকা মূল্যমানের ব্যাংক নোট দু’টির মধ্যে রঙের পার্থক্য স্পষ্ট করতে ৫০ টাকার নতুন নোট চালু করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।এরইমধ্যে ৫০ টাকার নতুন নোটের ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। নতুন নোটে নকশায় কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। লালচে কমলা রং ব্যতীত অন্যান্য সব নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য (জলছাপ, দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য ২টি বিন্দু, মাইক্রোপ্রিন্ট, খসখসে লেখা ইত্যাদি) অপরিবর্তিত রয়েছে।এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে

বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনে বিদ্যুৎ নেই

  

পিএনএস ডেস্ক: জধানীর মতিঝিলে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৩০তলা মূল ভবনে সকাল থেকেই বিদ্যুৎ নেই।বিদ্যুতের কারণে লিফট বন্ধ থাকায় কর্মকর্তারা ভবনে উঠতে না পেরে নিচে দাঁড়িয়ে আছেন। আবার কেউ কেউ সিঁড়ি দিয়ে উপরে উঠলেও বিদ্যুতের অভাবে কোন কাজ করতে পারছে না।এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র আবুল কালাম আজাদ বলেন, কোথায় সমস্যা হয়েছে সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। শিগগিরই ঠিক হয়ে যাবে।পিএনএস/এএ

কমছে টাকার মান, বাড়ছে আমদানি ব্যয়

  

পিএনএস ডেস্ক: মার্কিন ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমে যাচ্ছে। এতে বাড়ছে আমদানি ব্যয়। এর সরাসরি প্রভাব পড়ছে বাণিজ্য ঘাটতির ওপর। বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান মতে, গত বছরের ৪ ডিসেম্বর আন্তঃব্যাংক মুদ্রাবাজারে প্রতি ডলার পেতে যেখানে ব্যয় করতে হতো ৮৩ টাকা ৯০ পয়সা, চলতি মাসের একই সময়ে তা বেড়ে হয়েছে ৮৪ টাকা ৯০ পয়সা। তবে আমদানি পর্যায়ে করপোরেট ডিলিংয়ের মাধ্যমে লেনদেন হচ্ছে ৮৬ টাকা পর্যন্ত। রফতানি আয় কমে যাওয়ায় বৈদেশিক মুদ্রার প্রবাহে টান পড়েছে।এক দিকে আমদানি চাহিদা বেড়ে গেছে, অপর দিকে টাকার মান কমে

নতুন রঙে আসছে ৫০ টাকার নোট

  

পিএনএস ডেস্ক : বর্তমানে প্রচলিত ১০ টাকার রঙের সঙ্গে কিছুটা মিল থাকায় ৫০ টাকার নতুন নোট ছাড়ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। নতুন নোটটি হবে লালচে কমলা রঙের।আগামী রোববার (১৫ ডিসেম্বর) থেকে ৫০ টাকার এই নোট বাজারে আসবে বলে জানা গেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে। এতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিস থেকে এবং পরে বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্যান্য অফিস থেকে এই নোট ইস্যু করা হবে।সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, নতুন প্রচলিত এ নোটে বিদ্যমান ৫০ টাকা মূল্যমান ব্যাংক নোটের ডিজাইন অপরিবর্তিত রয়েছে।

চূড়ান্ত হিসেবে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ

  

পিএনএস ডেস্ক : বিগত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ এবং জাতীয় মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৯০৯ মার্কিন ডলারে উন্নীত হয়েছে।আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান।তিনি বলেন, প্রাথমিক হিসাবে গত অর্থবছরের প্রবৃদ্ধি ছিল ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ, কিন্তু চূড়ান্ত হিসাবে প্রবৃদ্ধি দাঁড়িয়েছে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ। আর মাথাপিছু আয় ১ হাজার ৯০৯

অস্বাভাবিক খেলাপি ঋণ ১৯ ব্যাংকে

  

পিএনএস ডেস্ক: অস্বাভাবিক অবস্থায় চলে গেছে ১৯ সরকারি-বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকের খেলাপি ঋণ। তাদের কোনো কোনোটির মোট ঋণের ৮৩ শতাংশ চলে গেছে ঋণখেলাপিদের পেটে। আবার কোনোকোনোটির খেলাপি ঋণের ৯০ শতাংশই মন্দ ঋণ বা আদায় অযোগ্য ঋণে পরিণত হয়েছে।বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, উচ্চ খেলাপি ঋণের কারণে ব্যাংকগুলোর ভিত্তি দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। সম্পদের গুণগত মান কমে যাচ্ছে। সামগ্রিক প্রভাব পড়ছে ঋণের সুদ ও আয়ের ওপর।বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ গতকাল জানিয়েছেন, আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী,

ফের শেয়ারবাজারে আতঙ্ক, একদিনের নেই ৪ হাজার কোটি টাকা

  

পিএনএস ডেস্ক : শেয়ারবাজারে এখন বিনিয়োগকারীদের মধ্যে নতুন করে আতঙ্ক বিরাজ করছে। দিনের ব্যবধানে হচ্ছে ব্যাপক দর পতন। একদিনেরই দেশের প্রধান স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের বাজার মূলধন কমেছে ৪ হাজার কোটি টাকা।শেয়ারবাজার বিশ্লেষকদের ধারণা, ব্যাপক দরপতনের পিছনে বিনিয়োগকারীদের আস্থার সংকটকে একটি বড় কারণ। দেশের আর্থিক সেক্টরের সার্বিক প্রভাব পুঁজিবাজারে পড়েছে। বিশেষ করে ব্যাংক খাতের অস্থিরতা পুঁজিবাজারে প্রভাব ফেলেছে বেশি। অব্যাহত দরপতনের কারণে বিনিযোগকারীদের মধ্যে বড়

উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হওয়ার পরও জিএসপি প্লাস সুবিধা চাইলেন বাণিজ্যমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হওয়ার পরও জিএসপি প্লাস সুবিধা চাইলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ আগামী ২০২৪ সালে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হবে। এর তিন বছর পর এলডিসিভুক্ত দেশের সুবিধাগুলো বাংলাদেশ আর পাবে না। তবে বাণিজ্যমন্ত্রী আশা করেন, ওই সময়ের পরও ইউরোপিয়ন ইউনিয়ন রপ্তানির ক্ষেত্রে আমাদেরকে জিএসপি প্লাস সুবিধা প্রদান করবে।’রবিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ইইউ-বাংলাদেশ বিজনেস ক্লাইমেট ডায়ালগের ৬ষ্ঠ রাউন্ডের সভায় বাংলাদেশ পক্ষের প্রতিনিধি দলের প্রধান হিসেবে তিনি এ

পোশাক রফতানির উল্টোযাত্রা

  

পিএনএস ডেস্ক: তৈরী পোশাক রফতানি উল্টো দিকে যাত্রা শুরু করেছে। টানা চার মাস ধারাবাহিকভাবে কমছে পোশাক রফতানি। নভেম্বরে ৭ দশমিক ৭৪ শতাংশ, অক্টোবরে ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ, সেপ্টেম্বরে ১ দশমিক ১৬ শতাংশ এবং আগস্টে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দশমিক ৩৩ শতাংশ কমে যায় পোশাক রফতানি। এই খাতটির এমন নেতিবাচক প্রবণতায় হতবাক তৈরী পোশাক এবং এর ফরোয়ার্ড ও ব্যাকওয়ার্ডে শত শত শিল্পের সাথে যুক্ত লাখ লাখ লোক। সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় প্রণোদনার অভাব, অবকাঠামোগত সমস্যা, ডলারের বিপরীতে টাকার অবমূল্যায়ন না করা, ব্যাংক

দেশের অর্থনীতির প্রায় সব সূচক নিম্নমুখী

  

পিএনএস ডেস্ক: একটি বাদে অর্থনীতির প্রায় সব সূচক এখন নিম্নমুখী। রপ্তানি আয়ে কোনো প্রবৃদ্ধিই নেই, আমদানিতেও একই অবস্থা। রাজস্ব আয়ে বড় ঘাটতি। দীর্ঘ প্রস্তুতি নিয়ে নতুন আইন করার পরেও ভ্যাট আদায় মোটেই বাড়েনি।একমাত্র স্বস্তির সূচক প্রবাসী আয়। এ ছাড়া অর্থনীতির আর কোনো সূচকেই ভালো নেই দেশের অর্থনীতি। আরও খারাপ খবর হচ্ছে, আয় কম থাকায় সরকারের ঋণ করার প্রবণতা বাড়ছে। বেসরকারি বিনিয়োগ বহু বছর ধরেই স্থবির। চলতি অর্থবছরে পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে। ব্যাংক থেকে বেসরকারি খাতের ঋণ নেওয়া অনেক কমে গেছে। এর

Developed by Diligent InfoTech